Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

স্ত্রী সুজাতা মার খাচ্ছেন, কি প্রতিক্রিয়া সৌমিত্র খাঁর?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্সের মামলা চলছে। কিন্তু খাতায়-কলমে এখনও সুজাতা তাঁর স্ত্রী। মঙ্গলবার আরামবাগের তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ মন্ডলকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধে। যদিও সেই বিষয়টি নিয়ে পুরোপুরি নিরুত্তাপ তাঁর স্বামী বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। তিনি বলেন, ” গত দশ বছরে আরামবাগে তৃণমূল ভোট করতে দেয়নি। এটা মানুষের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ”। এভাবেই এদিনের ঘটনা নিয়ে নিজের অবস্থান প্রকাশ করেছেন তিনি।

পাল্টা নাম না করে সুজাতা বলছেন, ” পাগল, ছাগলের কথার উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন মনে করি না। আসলে বিজেপি দলটাই এরকম। আমি এখানে জিতে যাব সেটা ওরা জানে। তাই এমন হিংসা ছড়াচ্ছে। কিন্তু জেনে রাখুন সুজাতা মন্ডল লড়াইয়ের ময়দান ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য আসেনি। আমি এখান থেকে জিততে চলেছি”।

মাস তিনেক আগে বঙ্গ রাজনীতিতে একটি অদ্ভুত ঘটনা দেখা যায়। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেন সৌমিত্রর স্ত্রী সুজাতা। তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হন। তাঁর নিশানায় ছিলেন স্বামী সৌমিত্র খাঁ। সেই সময় বিজেপি দপ্তরে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে স্ত্রীকে ডিভোর্স এর নোটিশ পাঠানোর কথা ঘোষণা করেন সৌমিত্র। কান্নায় ভেঙে পড়ে সেই নোটিশ পাঠিয়েছিলেন তিনি।

আরো পড়ুন : উল্টে গেল! স্বপন দাশগুপ্তকে লক্ষ্য করে স্লোগান উঠল ‘জয়বাংলা’ধমক পুলিশের

তিনি যখন সাংবাদিক সম্মেলন করছিলেন, তার একটু আগেই তৃণমূল ভবনে গিয়ে জোড়াফুলের পতাকা হাতে তুলে নিয়েছিলেন সুজাতা। এরপর লড়াকু মনোভাবের জন্য তাঁকে আরামবাগ কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী করেছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরেই আজ মঙ্গলবার ভোটের দিন সুজাতাকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। সুজাতার দাবি, তাঁর মাথায় লাঠি দিয়ে মারা হয়েছে। পায়ে আঘাত করা হয়েছে। আঘাতের জেরে তাঁর মাথা ফুলে গিয়েছে।

যদিও বিজেপি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। বিষয়টি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তীব্র আক্রমণ করেছেন বিজেপি ও কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ‌। তিনি বলেন, ” কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সম্মান করি। কিন্তু তুমি আমার এসসি প্রার্থী সুজাতাকে মেরেছ, ওর সিকিউরিটির মাথা ফাটিয়ে দিয়েছ। গোঘাটে মানস মজুমদারকে ঢুকতে দাওনি, শওকত মোল্লাকে এলাকায় ঢুকতে দাওনি।

এইভাবে বাংলা দখল করা যাবে না”। স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ মানুষের কৌতূহল ছিল সৌমিত্র এই ব্যাপারে কী বলেন সেদিকে। কিন্তু ঘটনাটি নিয়ে তাঁকে বিচলিত হতে দেখা যায়নি। তিনি এর জন্য তৃণমূলের দীর্ঘদিনের সন্ত্রাসকেই দায়ী করেছেন।