Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

জিতেন্দ্রকে নিয়ে কেন সুর নরম করলেন বাবুল সুপ্রিয়? জল্পনা তুঙ্গে

1 min read

।। ময়ুখ বসু ।।

জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে (Jitendra Tiwari) নিয়ে নতুন বছরের শুরুতেই ফের বাড়লো জল্পনার পারদ। জিতেন্দ্র কি শেষ পর্যন্ত তৃণমূলেই থাকবেন, না কি বিজেপিতেই যোগ দেবেন তা নিয়ে ধোয়াশার পর্দা যেন কিছুতেই কাটছে না। যে জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে একটা সময় রীতিমতো ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। এবার সেই বাবুলই জিতেন্দ্রকে নিয়ে অনেকটাই রক্ষানার্থক খেললেন। যা নিয়েই রাজ্য রাজনৈতিক মহলে জল্পনার পারদ চড়ছে। বাবুল সুপ্রিয় আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে নিয়ে বলেন, আসানসোলে কেন্দ্রীয় সরকারের অনেক প্রকল্পের কাজ করতে দেয়নি রাজ্যের শাসকদল।

আমরা এতোদিন যখন একথা বলতাম তখন অনেকেই ভাবতেন আমরা বোধহয় মিথ্যে কথা বলছি। কিন্ত আজ দেরীতে হলেও আসল সত্যিটা স্বীকার করে নিয়েছেন আসানসোলের মেয়র। তাঁর কথাতেই প্রমাণিত হয়ে গিয়েছে, রাজনৈতিক কারনেই আসানসোলের উন্নতি ঘটেনি। জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে নিয়ে বাবুলের এমন রক্ষনার্থ মন্তব্য ফের জিতেন্দ্রকে রাজ্য রাজনীতির সমালোচনার মুখে এনে ফেললো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল। উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরেই জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে নিয়ে দলবদল ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা তৈরি হয়।

নতুন বছর নতুন আশা প্রথম কলকাতা চাইছে আপনাদের ভালোবাসা

নতুন বছর নতুন আশা প্রথম কলকাতা চাইছে আপনাদের ভালোবাসা

Posted by prothomkolkata.com on Thursday, December 31, 2020

কিছুদিন আগেই আসানসোল পুরসভার পদ থেকে শুরু করে তৃণমূল থেকেও পদত্যাগ করেন তিনি। এরপর ফের তৃণমূলে ফিরেও যান। কিন্ত তৃণমুলে ফেরার পরেও সামাজিক মাধ্যমে তার কিছু ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য তাকে সমালোচনার মধ্যমনিতে বারবার ফিরিয়ে নিয়ে আসে। কিন্ত তারপরেই সম্প্রতি কলকাতার নিউটাউনে বিজেপির এক হাইভোল্টেজ বৈঠকে সস্ত্রীক জিতেন্দ্রকে দেখা যেতেই শুরু হয়ে যায় রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড়। ফের শুরু হয়ে যায় দল বদলের জল্পনা। এরপরেই আসে বাবুলের রক্ষনার্থক বার্তা। যাকে ঘিরে ফের চড়তে শুরু করেছে জল্পনার পারদ। উল্লেখ্য, একটা সময় জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে নিয়ে দল বদলের জল্পনা চড়তেই জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে সবথেকে বেশী ক্ষোভ উগরে দেন বাবুল সুপ্রিয়। এরপরেই নড়েচড়ে বসে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

সুত্রের খবর, রাজ্য বিজেপির তরফে তড়িঘড়ি বাবুল সুপ্রিয়কে ডেকে এনে সতর্ক করা হয়। তারপরেই সুর নরম করেন বাবুল সুপ্রিয়। আসনসোলের উন্নয়ন নিয়ে একটা সময় যে বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriya) জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে কাঠগড়ায় তুলতে ছাড়েননি, সেই বাবুলই বলেন, দশ বছরে তৃণমূলের আমলে এলাকার কোনও উন্নয়নই হয়নি। যা উন্নয়ন হয়েছে তা নেতাদের জীবনযাপনের উন্নয়ন হয়েছে। রাজনৈতিক মহল মনে করছেন, বাবুল সুপ্রিয় অভিযোগের তীর সরাসরি জিতেন্দ্রর উপর থেকে সরিয়ে তৃণমূলের দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া অন্য কোনও ইঙ্গিতবাহী নয়তো? উল্লেখযোগ্যভাবে বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriya) এদিনের বার্তায় জিতেন্দ্রর নাম গন্ধটি পর্যন্ত করা হয়নি। যা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে ফের জল্পনার পারদ চড়তে শুরু করে দিয়েছে।