Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

কাকে ক্যান্সার বলে কটাক্ষ করলেন সুজাতা মন্ডল খাঁ ?

1 min read

।। শর্মিলা মিত্র ।।

ব্যারাকপুরের সুকান্ত সদনের জনসভা থেকে আবারও নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীর (Shubhendu Adhikari) বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন সদ্য বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদানকারী সুজাতা মন্ডল খাঁ (Sujata Mondal Khan)। তোপ দেগে তিনি বলেন, ‘তিনি বছর, চার বছর ধরে পাঁচিলের উপর বসে জল মাপছিলেন একজন ধান্দাবাজ পাল্টিবাজ নেতা।’ পাশাপাশি তার মন্তব্য, ‘স্বার্থপর, জালি সেই নেতা পাঁচিল টপকে গেল। কেন, না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) থাকলেতো পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে আর কাউকে মুখ্যমন্ত্রী মানবেনা জনগন। ওনার মুখ্যমন্ত্রী হতে ইচ্ছে হয়েছিল। আর একটা ইচ্ছে হয়েছিল।

সেটা হল, নারদার হাত থেকে বাঁচারও ইচ্ছে হয়েছিল।’ ‘দশ বছর ধরে এত কিছু ভোগ করার পর এখন বলে কিনা তিনি বন্চনার শিকার।’ পাশাপাশি তার মন্তব্য, ‘তুমি ছিলে ক্যান্সার। তাই ক্যান্সার হওয়া আঙুলটা আমরা কেটে বাদ দিয়ে দিলাম।’ অন্যদিকে, বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিভিন্ন জায়গায় মধ্যাহ্নভোজকে কটাক্ষ করে সুজাতা মন্ডল খাঁর (Sujata Mondal Khan) প্রশ্ন, ‘কারও বাড়িতে একদিন বসে খেলে সেই বাড়িটার যন্ত্রণা বোঝা যায়না। তো সেই সমাজটার যন্ত্রণা কী করে বোঝা যাবে ? পাশাপাশি তার মন্তব্য, ‘এত যদি দলিতদের সম্মান থাকত, আমাকে তাহলে দল ছাড়তে হতনা।’ ওই সভা থেকেই ‘বিজেপিকে ভেগধারী’ বলে কটাক্ষ সুজাতা মন্ডল খাঁর।

আরো পড়ুন :আগে ক্ষ্যাপা দিলীপ বলতাম এখন খ্যাপা ষাঁড় বলি, ফের বেলাগাম কল্যান

তিনি বলেন, ‘দলটা বড্ড ভেগধারী, বড্ড অভিনয়টা ভালো পারে, বাস্তবটা কিছুই পারেনা।’ তিনি মনে করিয়ে দেন, ‘ক্ষমতায় আসার আগে বলেছিল প্রত্যেকের account-এ ১৫ লাখ টাকা যাবে। ১৫ টাকাও যায়নি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আবার বলেছিল কালা ধন উদ্ধার করা হবে। কালাধন আর সাদা ধনের ফারাকটাওতো বিজেপিই জানে। আমরাতো জানিনা।’ ‘আমরা জানি একটা সেটা হল মূলধন। আর এই মূলধন থাকলে রুটিরুজি করে খেতে পারবো।’ মন্তব্য সুজাতা মন্ডল খাঁর (Sujata Mondal Khan)। পাশাপাশি তার প্রশ্ন, ‘কালাধন কী উদ্ধার হল ? কালাধন একটা টাকাও উদ্ধার হল না। বরং বিজেপির বড় বড় নেতাদের কালো কালো ধানগুলো Swiss Bank-এ রয়ে গেল।

একটা টাকাও এলনা।’ অন্যদিকে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Abhishek Bandopadhyay) বিজেপির ‘ভাইপো’ বলাকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘তারা বিজেপির নেতাদের কে জানতে চায় তারা নিশ্চিত বানের জলে ভেসে এসেছে। কোন পিতৃপরিচয় নেই। নইলে ভাইপো ভাইঝিতো আমরা সবাই কারও না কারও। আর সেটা হবার মধ্যে অপরাধ কী ? প্রশ্ন সুজাতা মন্ডল খাঁর (Sujata Mondal Khan)। পাশাপাশি তার কটাক্ষ, ‘বিজেপি নেতাদের পরিবার বলতে আম্বানি। বিজেপি নেতাদের পরিবার বলতে আদানি। বিজেপি নেতাদের পরিবার বলতে মালিয়া, আরও অনেক বড় বড় দেশ বেচে দেওয়ার ডাকাত চোররা।’ তার কটাক্ষ, ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) নাম করতে ভয় পাচ্ছো, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়তো (Mamata Banerjee) অনেক দূর।’