Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

কমিশনের এত আঁটোসাঁটো নজর এড়িয়ে কোথায় কি অভিযোগ ?


।। ময়ুখ বসু ।।


তৃতীয় দফার ভোট শুরু হতেই অশান্তির খবর উঠে আসতে শুরু করেছে একাধিক কেন্দ্র থেকে। তৃতীয় দফায় রাজ্যের ৩১ টি আসনে চলছে ভোটগ্রহণ। আর ভোটগ্রহণ শুরু হতে না হতেই বিক্ষিপ্ত অশান্তিতে উত্তপ্ত হতে শুরু করেছে চারিদিক। সকাল ১১ টা বাজার আগেই রীতিমতো ভোট কেন্দ্রগুলিকে ঘিরে অভিযোগের পাহাড় জমতে শুরু করেছে। বিক্ষিপ্ত অশান্তির চোখ রাঙানিতে উত্তপ্ত হতে আরম্ভ করেছে বাংলার ভোট বাজার। এদিন সকালেই উত্তেজনা ছড়িয়েছে উলুবেড়িয়ার বাগনানে। সেখানে এক তৃণমূল নেতার বাড়িতে ইভিএম পাওয়ার ঘটনায় তৃণমূল বিজেপির মধ্যে সংঘাতের সৃষ্টি হয়েছে।

মগরাহাট পশ্চিমের নেত্রা হাইস্কুলের বুথে আইএসএফ কর্মীকে বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় তৃণমূল ও আইএসএফ কর্মীদের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়। উলুবেড়িয়া উত্তরের ৪৪ নম্বর বুথে আইএসএফের বিরুদ্ধে বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে। এদিকে তৃতীয় দফার ভোটের আগেই গোঘাটের বদনগঞ্জ এলাকায় এক বিজেপি কর্মীকে খুন নিয়ে তোলপাড় কান্ড ঘটে। অভিযোগ, ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মা মাধবী আদক খুন হয়ে যান। এই ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে বিজেপি।

অন্যদিকে, এদিন সকালেই ক্যানিং পূর্বের শকুন্তলা এলাকায় ভোটগ্রহণ শুরু হতেই উত্তেজনা ছড়ায়। বাগনানে তৃণমূলের বুথ সভাপতির উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। সাতগাছিয়ায় ১০৪ নম্বর বুথে সিআরপি এফের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। সিআরপিএফের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ডায়মন্ডহারবারের ১০৯ নম্বর বুথেও। ক্যানিং পূর্বের ৮৭ নম্বর বুথে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। একই অভিযোগ উঠেছে রায়দিঘীর ২৪ নম্বর বুথেও।

আরো পড়ুন : বিজেপিকে ভোট দিতে বলা হচ্ছে, সিআরপিএফের বিরুদ্ধে অভিযোগ, উত্তপ্ত গোঘাট

হাওড়ার বাগনানের ১৫ নম্বর বুথে বিজেপি অশান্তি তৈরি করছে বলে তৃণমূল অভিযোগ তুলেছে। বাগনানের ২২৮ নম্বর বুথে তৃণমূলের ক্যাম্প অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। ক্যানিং পূর্বের বুরানগড়ে ব্যাপক বোমাবাজির খবর মিলেছে। রাস্তার পাশ থেকে উদ্ধার হয়েছে তাজা বোমা। তৃণমূলের অভিযোগ আইএসএফ এই বোমাবাজি চালিয়েছে। আরামবাগ বিধানসভার শুভয়পুর হরিজন প্রাইমারি বিদ্যালয়ে তৃণমূলের এজেন্ট দেওয়াকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার ঘটনা ঘটে।

সব মিলিয়ে একাধিক কেন্দ্রে বাড়ছে অশান্তির বাতাবরণ। তবে আপাতত দক্ষিণ ২৪ পরগণা এবং হুগলী জেলাতেই বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনা বেশী চোখে পড়েছে। নির্বাচন কমিশনের একগুচ্ছ ব্যাবস্থা থাকা সত্বেও তৃতীয় দফার ভোটগ্রহণ শুরু হতেই যেভাবে অশান্তি মাথাচাড়া দিতে শুরু করেছে তাতে ফের একবার কমিশনের ভূমিকা প্রশ্নের মুখে পড়ে গেলো। কীভাবে বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছড়াচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে আরম্ভ করেছেন বিরোধীরা।