বেআইনী বিষয়বস্তু থাকার অপরাধে টিকটিক নিষিদ্ধ হল এই দেশেও!

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।। কলকাতা ।।

এবার ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পথে হাটছে পাকিস্তানও। টিকটক প্ল‍্যাটফর্মকে বেআইনি বিষয়বস্তুর লাগামহীন প্রচারমাধ্যম হিসেবে ব‍্যবহার করছেন দেশবাসী। তাই এই বিশেষ অ‍্যাপটি নিষিদ্ধ করে দেওয়া হল পাকিস্তান সরকারের তরফে। একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে অ্যাপটিকে যেধরনের নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছিল পাকিস্তান টেলি কমিউনিকেশন দফ্তরের তরফে, সেই সমস্ত নির্দেশিকা মানেনি অ্যাপটি। 

এক বিবৃতিতে পাকিস্তান টেলিকমিউনিকেশন কর্তৃপক্ষ শুক্রবার জানিয়েছে যে ভিডিও প্রকাশ করার এই বিশেষ প্ল্যাটফর্মে অনৈতিক ও অশালীন বিষয়বস্তুর প্রচার করা হচ্ছে বলে তাদের কাছে বিপুল পরিমাণে অভিযোগ এসেছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তারা এই পদক্ষেপ নিয়েছেন।

 সংবাদমাধ্যমের সূত্র অনুযায়ী, টিকটকে ধারাবাহিকভাবে পোস্ট করা সমস্ত ভিডিওর প্রকৃতি এবং বিষয়বস্তু নিয়ে বহু মানুষ আপত্তি জানিয়েছিলেন। সেই সব আপত্তি অভিযোগের রূপে নথিভুক্ত করা হয়, এবং সেই সমস্ত অভিযোগের কথা বিবেচনায় রেখে সংস্থাকে একটি চূড়ান্ত নোটিশ জারি করা হয়। সংস্থাটি সমস্ত বিষয়গুলি যথাযথ নির্দেশনা ও নির্দেশিকাগুলি মেনে চলার জন্য যথেষ্ট সময় দেওয়া হয়, যাতে সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখে তার সমাধান দেওয়া সম্ভব হয়।

তবে পাকিস্তান সরকারের দেওয়া নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সংস্থাটি অ্যাপের নির্দেশিকা এবং বিষয়বস্তুর উপর নিয়ন্ত্রন রাখতে ব্যর্থ হয়। তাই অনতিবিলম্বে পাকিস্তানের তরফে অ্যাপটিকে ব্যান করে দেওয়া হয়। সঙ্গেই সঙ্গেই পাকিস্তানের ব্যবহারকারীরা অ্যাপ ব্যবহার করতে অক্ষম হয়। তারা কার্যত খালি ট্যাব দেখতে পায়, যা নিয়ে টুইটারে ইতিমধ্যেই শোরগোল পড়ে গেছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ইমরান খানের সরকারের সঙ্গে হৃদতার সম্পর্ক রয়েছে চীনের। এইভাবে অ্যাপ নিষিদ্ধ করায় কি দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্কে ছেদ পড়তে চলেছে? বাইটডান্সের এই অ্যাপটি পাকিস্তানে প্রায় ৩৯ লক্ষ ব্যবহারকারীকে বিনোদনের সুবিধা করে দিয়েছে। পৃথিবীতে সর্বাধিক ডাউনলোড করা অ্যাপের মধ্যে এই অ্যাপটি তৃতীয় স্থানে রয়েছে।