Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

এবার ‘দিদি ও দিদি’ টোনে নয়, মোদির মুখে আদরনীয় ‘দিদি’ ডাক

।। প্রথম কলকাতা ।।

এতদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজের বক্তব্যে বারবার তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে সম্বোধন করেছেন দিদি, ও দিদি বলে। মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) সেখানে যোগ হল আদরনীয় দিদি শব্দ। এদিন কোচবিহারের রাসমেলা ময়দানে বিপুল সংখ্যক মানুষের সামনে প্রধানমন্ত্রীর দাবি, আপনি হেরে গিয়েছেন দিদি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুসলিমরা আপনাদের ভোটব্যাঙ্ক ছিল এতদিন ধরে। এটা আপনারা বিশ্বাস করতেন। কিন্তু সেই মুসলিমরাও আপনার পাশে আর নেই।

আমরা কোনোদিন সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করিনি। আমরা বলিনি সমস্ত হিন্দুরা এক হয়ে যাও। তাহলে গোটা দেশে সংবাদপত্র আমাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলত। নির্বাচন কমিশন আমাদের দলকে এবং প্রার্থীকে নোটিশ পাঠাত। কিন্তু আদরনীয় দিদি আপনি নির্বাচন কমিশন থেকে কটা নোটিশ পেয়েছেন সেটা আমরা জানি না।

আপনি বলেছেন দুই দফার নির্বাচনে বিজেপি প্রচুর আসন পেয়েছে সেটা আমরা বুঝলাম কি করে? আমরা নাকি ভগবান, সেই কারণে বুঝতে পেরেছি, আপনি এমন কটাক্ষ করেছেন। কিন্তু আমি আপনাদের বলছি শুনুন। এটা বুঝতে গেলে ভগবান হতে হয় না। এভাবে ভগবানকে যতটা কষ্ট দেওয়া যায় না।

আরো পড়ুন : কমিশনের এত আঁটোসাঁটো নজর এড়িয়ে কোথায় কি অভিযোগ ?

নন্দীগ্রামে নির্বাচনের দিন আপনি যেভাবে ভয় পেয়েছিলেন, যেভাবে অভিযোগ করেছেন কমিশনের বিরুদ্ধে, যেভাবে অভিযোগ করেছেন ইভিএম এর বিরুদ্ধে, যেভাবে অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে, তাতেই সবাই বুঝে গিয়েছেন আপনি হেরে যাচ্ছেন। বাংলার প্রতিটা বাচ্চা ছেলেও জানে আপনি হেরে যাচ্ছেন, এর জন্য ভগবান হতে হয় না।

হাতে তালি মেরে এমনটাই দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলার প্রতিটি অঞ্চল আওয়াজ উঠেছে চলো পাল্টাই। বারবার বাংলায় স্লোগান দেন, মিথ্যার খেলা শেষ করতে চলো পাল্টাই। কাটমানির খেলাকে দাও বিদায়। হিংসার রাজনীতিকে দাও বিদায়। হারানো গৌরব ফেরানোর জন্য তৃণমূলকে দাও বিদায়।

চলো পাল্টাই চলো পাল্টাই। তৃণমূলকে দাও বিদায়। মোদির ভাষণে উত্তাল হয়ে ওঠে জনসভা। চিৎকার ওঠে মোদি মোদি। প্রধানমন্ত্রী তখন বলেন, আপনাদের উচ্ছ্বাস থেকে থামতে হল। আপনাদের এই ভালবাসা ভুলব না। উন্নয়ন করে এই ভালবাসা ফিরিয়ে দেব।

পিসিসি