এবার ভারতে মিলবে গাধার দুধ, গাধার দুধেই হবে কোটি টাকার ব্যবসা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

গাধা পিটিয়ে ঘোড়া তৈরি আর বোধহয় প্রয়োজন নেই।গবেষণায় জানা গিয়েছে গাধার দুধের ফ্যাট কম।
রয়েছে প্রচুর ভিটামিন ও খনিজ।তাই ওষুধ প্রসাধন সামগ্রী তৈরির কাঁচামাল হিসেবে গাধার দুধের চাহিদা প্রচুর।যার জন্য আমেরিকা-ইউরোপ মধ্য পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে এই দুধ কিনতে পুরোপুরি পড়ে যায়।সেই ঝোঁক বাড়ছে ভারতীয়।

ন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টার অন ইকুইন্স এর উদ্যোগে সেখানেই খুলতে চলেছে ভারতবর্ষেসর্বপ্রথম গাধার দুধের ডেয়ারি।সেখান থেকেই দশটি হালারি প্রজাতির গাধা নিয়ে আসা হয়েছে।তাদের পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানো হচ্ছে।যত্ন নিয়ে দুগ্ধদানের উপযুক্ত করে তোলা হচ্ছে।শুধু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নয় দেখা গিয়েছে ক্যান্সারের মতো মারণ রোগের ক্ষেত্রেও গাধার দুধ উপকারী।

এছাড়াও জানা যাচ্ছে গাধার দুধে কোন এলার্জির বস্তু নেই।তবে জানা যাচ্ছে যে, গাধার দুধের দাম হতে চলেছে প্রতি লিটার 7000 টাকা।গাধার দুধে রয়েছে ভিটামিন এ, বি1,বি 2, ডি, সি, ই। ওমেগা 6, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম সোডিয়াম ও জিঙ্ক।তাই হয়তো ভারতীয় বাজারে আকাশছোঁয়া দাম হতে চলেছে গাধার দুধের।