চকোলেট ছাড়া ভোগই খান না এই দেবতা!

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

জানেন কি আমাদের দেশে রয়েছে এমন এক মন্দির যেখানে ভগবানকে চকোলেট নিবেদন করা হয়। তাও আবার ভোগ হিসাবে। কেরলের এই মন্দিরের নাম শেমথ শ্রী সুব্রহ্মন্যম স্বামী মন্দির। ওই মন্দিরেই পূজিত হন মুরুগান দেব। পুরাণ মতে, যাকে কিনা শিব ও পার্বতীর ছেলে কার্তিকের অবতার হিসাবে মানা হয়।
প্রচলিত কথা অনুসারে, কেরলের মুরুগান দেব-এর পছন্দ শুধুমাত্র চকোলেট! তবে মুরুগান দেবের বিশেষ পছন্দ ‘মাঞ্চ’ চকোলেট। তাই তাঁকে ‘মাঞ্চ মুরুগান’ বলেও ডাকা হয়।
কিন্তু মুরুগান দেবকে হঠাৎ চকোলেট দেওয়া হয় কেন? এর নেপথ্যে রয়েছে এক লোককাহিনী। স্থানীয়দের মতে, একদিন খেলতে খেলতে মন্দিরে ঢুকে ঘণ্টা বাজিয়ে ফেলে এক মুসলিম বালক। তার এহেন আচরণের জন্য বাবা-মার কাছে খুব বকুনি খায়। সেই রাতেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে ছোট্ট বালক, সারা রাত ঘোরের মধ্যে শুধু মুরুগানদেবের নাম জপ করতে থাকে। সকালবেলাই নাকি সুস্থ হয়ে ওঠে ওই বালক। তখন মুরুগানদেবের মন্দিরে যায় সে। তার বাবা-মা’ই নিয়ে যায় তাকে। সেখানে পুরোহিতরা বালককে ভগবানের উদ্দেশ্যে কিছু নিবেদন করতে বলেন। কিছু না জেই ভগবানকে চকোলেট নিবেদন করে ওই বালক। সেই থেকেই এই রীতি চালু হয়ে যায় কেরলের এই মন্দিরে।