কেন্দ্র ও রাজ্যের যোগসূত্র ঘটাতে এই অভিজ্ঞ ব্যক্তিকে নিয়োগ রাজ্যের

1 min read

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।। কলকাতা ।।

সাংবাদিকতার সাহায্যে রাজ্যের সঙ্গে কেন্দ্রকে জুড়তে বিশেষ উদ্যাগ নেওয়া হল। বর্ষীয়ান সাংবাদিক হিসেবে তাঁর নাম ডাক রয়েছে। বহু বছর ধরে সরকারি আধিকারিক এবং রাজনীতিবিদদের কাছে সুপরিচিত তিনি। বহু বছরের অভিজ্ঞতাও রয়েছে তাঁর। কথা হচ্ছে সাংবাদিক জয়ন্ত ঘোষালের সঙ্গে। তিনি এবার রাজ্য-কেন্দ্রের মধ্যে সংযোগ রাখবেন।

রাজ্যের তরফে তাঁকে এই কাজের জন্য নিযুক্ত করা হয়েছে। তিনি মাসে দেড় লক্ষ টাকা বেতন পাবেন এবং কলকাতা ও রাজ্যে তাঁর দুটি অফিস থাকবে। বিমান যাত্রার সুবিধাও তিনি পাবেন। দিল্লিতে রাজ্যের মুখ্য কমিশনারের কার্যালয় এবং কলকাতায় তথ্যসংস্কৃতি ভবনে একটি করে অফিস থাকবে তাঁর জন্য বরাদ্দ। তাঁকে রাজ্যের বিভিন্ন প্রকল্পের বিষয়ে কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে সমন্বয়সাধন করতে হবে। নবান্নের তরফে এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তিতে এই বিষয়টি জানানো হয়েছে।

কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যের মধ্যে প্রকল্প নিয়ে নানারকম বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জেরে রাজ্যের সঙ্গে কেন্দ্রের বাক বিতন্ডাতে অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরী হয়েছে, যা কেন্দ্র এবং রাজ্যের ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বহুবার। আদালত পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছে এই সমস্যা। তাই পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে
এবং দিল্লি ও কলকাতার মধ্যে দূরত্ব কমাতেই নবান্নের তরফে সাংবাদিককে নিয়োগ করা হয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে দিল্লিতে জয়ন্ত বাবু সাংবাদিকতার সূত্রে নর্থ ও সাউথ ব্লকের কর্মপদ্ধতি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। তাই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাজকর্মকে জাতীয় স্তরের গণমাধ্যম সহ কেন্দ্রের কাছে পৌঁছে দেওয়ার কাজটি তিনি দক্ষতার সঙ্গে সামলে নিতে পারবেন। আশা করা হচ্ছে, এই নিয়োগের ফলে দিল্লি এবং কলকাতার মধ্যেকার দুরত্ব একটু হলেও কমবে।