গণতন্ত্র নেই, দলীয় কর্মসূচি ঘোষণা দিলীপের

।। রাজীব ঘোষ ।।

পশ্চিমবাংলায় বিরোধীদের স্বাধীনতা নেই গণতন্ত্র নেই কথা বলার অধিকার নেই। লকডাউন করা হচ্ছে রাজনৈতিকভাবে। বিরোধীরা যাতে কর্মসূচি করতে না পারে। এই কথা বললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি আরো বলেন মানুষ এখানে ভোট দিতে পারছেনা। মিডিয়া কথা বলতে পারছে না। সোশ্যাল মিডিয়াতেও মানুষ কথা বলতে পারছে না।

যদি সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বলা হয় তাহলে পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে গিয়ে অস্ত্র আইনে কেস দিয়ে দিচ্ছে। পঞ্চায়েত নির্বাচনকে প্রহসনের পরিণত করেছে সরকার। রাজ্যে বিজেপি কে কর্মসূচি করতে দেওয়া হচ্ছে না। এরপরে দিলীপ ঘোষ রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে নতুন কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেন। সেখানে তিনি বলেন ৪ সেপ্টেম্বর গণতন্ত্র বাঁচাও শ্লোগানকে সামনে রেখে রাজ্যের সমস্ত বিডিও অফিসের সামনে বিজেপি ধরনা অবস্থান কর্মসূচি করবে। রাজ্যে বিরোধীদের অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। মিডিয়াকে কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না।

বিরোধীদের হত্যা করা হচ্ছে। সেই সমস্ত বিষয়ে প্রতিবাদ জানাতেই এই কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। শুভেন্দু অধিকারীর প্রসঙ্গে তিনি বলেন দলের নেতার নামে তার কর্মীরা বিভিন্নভাবে পোস্টার দিতে পারেন। বিজেপিতে আসবেন কিনা সেটা ওনাকে ঠিক করতে হবে। তবে বিজেপির দরজা সবার জন্য খোলা রয়েছে। এদিন থেকে সংগঠনের বিষয়ে আলোচনা করার জন্য বৈঠক শুরু হয়েছে। পুরসভার নির্বাচন বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা চলছে বৈঠকে।এই কথা জানান বিজেপির রাজ‍্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।