বর্ষা মৌসুমে বদলে যায় তাদের পেশা

1 min read

।। চট্টগ্রাম ব্যুরো, বাংলাদেশ ।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় তিতাস নদীসহ খাল-বিলে পানি থৈ থৈ করছে। যে দিকে দৃষ্টি যায় শুধু পানি আর পানি। বর্ষা মৌসুমে এমনটি দেখা মিলে এই উপজেলায়। এ সময় কোনো কাজ কর্ম না থাকায় কর্মহীন হয়ে জীবন-যাপন করে এখনকার লোকজন। আর চারদিকে পাই থাকায় ধরখার ও সদর উপজেলার বাসুদেব ইউপির বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ চলাচলে নৌকার উপর নির্ভর করতে হচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে অনেকে নৌকা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন।

চারিদেকে পানি থাকার ফলে এসব এলাকায় বন্ধ রয়েছে কৃষিকাজসহ অন্যান্য কাজকর্ম। কর্মহীন হয়ে পড়েছে এলাকার খেটে খাওয়া মানুষ। বেকারত্ব ঘুচাতে পেশা বদল করে অনেকেই ইঞ্জিন চালিত নৌকা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছে।

জানা যায়, আখাউড়া বড়বাজার-বরিশল (হেলিডি) সড়কে ব্রিজ না থাকায় উপজেলার বৈষ্ণবপুর, বনগজ, কৃষ্ণনগর, সদর উপজেলার বরিশল, ঘাটিয়ারাসহ আশপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষের চলাচলে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বাধ্য হয়ে তাদের নৌকায় চলাচল করতে হচ্ছে।

বড়বাজার নৌকা ঘাটের মাঝি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বর্ষা মৌসুমে তিতাস নদী, খাল, বিলে পানি থাকে। এ সময় এলাকায় কোনো কাজ কর্ম থাকে না। তাই নৌকা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতে হয়।

মো. মালেক মিয়া বলেন, কৃষি কাজের পাশাপাশি রাজমিস্ত্রীর সাথে শ্রমিকের কাজ করতাম। বেশ ভালো চলছিল। এখন পানি থাকায় কোনো কাজকর্ম নেই। পরিবারে কথা চিন্তা করে গত ১৫ দিন ধরে ভাড়ায় নৌকা চালাচ্ছি।