ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে মতবিরোধ দুই মন্ত্রীর

1 min read

।। রাজীব ঘোষ ।।

এবার প্রকাশ্যে একে অপরকে আক্রমণ করলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী অরূপ রায় এবং রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। দুজনেই হাওড়া জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক। আমপান ঘূর্ণিঝড়ের ত্রাণ দুর্নীতির অভিযোগে পঞ্চায়েতের তিনজন জনপ্রতিনিধিকে সাসপেন্ড করেন অরূপ রায়। এরপরেই রাজ্যের আরেক মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় অরূপ রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে প্রকাশ্যে বলেন রাঘববোয়ালদের বাদ দিয়ে চুনোপুঁটিদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

জেলা সভাপতি তদন্তে পক্ষপাতিত্ব দেখাচ্ছেন। প্রসঙ্গত, রাজ্যজুড়ে আমপান ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ এবং আর্থিক সহায়তা নিয়ে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। বিজেপি সহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে ব্যাপক বিক্ষোভ কর্মসূচি করা হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ত্রাণ দুর্নীতির বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেছেন। তারপর থেকেই রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন জেলায় যারা ত্রাণ দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছে তৃণমূল।

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন দলের নির্দেশ অনুযায়ী জেলা সভাপতি ও জেলা কো-অর্ডিনেটর সব সিদ্ধান্ত নেবে। আমি জেলা কো-অর্ডিনেটর হওয়া সত্ত্বেও কোনো মিটিংয়ে ডাকা হয় না। এর জবাবে অরূপ বলেন রাজীব বিজেপির সুরে কথা বলছেন। অনেকবার ওনাকে মিটিংয়ে ডাকা হয়েছে। উনি কোনো মিটিংয়ে আসেননি। দলকে জানিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওর অভিযোগ থাকলে দলকে জানাতে পারতেন। সাংবাদিকদের সামনে কেন বললেন।

ওর এই ব্যবহার দলের পক্ষে যথেষ্ট ক্ষতিকর। রাজিব বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে দলের কাছে অভিযোগ জানাবো। তারপর দল যেটা ঠিক করবে। আমপান ঘূর্ণিঝড়ের ত্রাণ দুর্নীতি কে কেন্দ্র করে রাজ্যজুড়ে তৃণমূল রাজনৈতিক ভাবে যথেষ্ট সমস্যার মধ্যে রয়েছে। এর মধ্যে রাজ্য সরকারের দুই মন্ত্রীর প্রকাশ্যে ঝগড়া তৃণমূলের যথেষ্ট পরিমাণে রাজনৈতিকভাবে অস্বস্তি বাড়ালো বলেই মনে করা হচ্ছে।