মুকুল ঘনিষ্ঠদের সন্ধান তৃণমূলে?

1 min read

।।রাজীব ঘোষ।।

শুরু হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসে মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠদের সন্ধান করা। এই কাজ শুরু করেছেন তৃণমূলের নির্বাচন কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের আইপ্যাক। মুকুল রায় যতদিন তৃণমূল কংগ্রেসে ছিলেন ততদিন জেলা থেকে ব্লক স্তরের তৃণমূল কর্মীদের নাম ধাম জানা ছিল তার। তাই তাকে তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড বলা হত। 2011 সালে রাজ্যে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের দায়িত্ব নেওয়ার পর দলের নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি চলে গিয়েছিল মুকুলের হাতে।

2014 সালের অক্টোবর মাসের পর থেকে তৃণমূল রাজনীতির সমীকরণ বদল হতে শুরু করে। সংগঠনের মুখ্যমন্ত্রীর সদ্য নির্বাচিত সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রভাব বাড়তে থাকে। ফলে মুকুলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হতে শুরু করে। একাধিকবার সেই দূরত্ব কাটানোর চেষ্টা করা হলেও সেটা আর হয়নি। তারপরেই মুকুল রায় বিজেপিতে যোগদান করেন। তৃণমূল কংগ্রেসে থাকাকালীন দলের নির্বাচন কৌশলী ছিলেন মুকুল রায়। তিনি বিজেপিতে যোগদান করার পর তৃণমূল থেকে একাধিক সাংসদ বিধায়ক নেতা-নেত্রীরা তার হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেন।

2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে তাদের মধ্যে অনেকেই সাংসদ হয়েছেন। দলের গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক পদ পেয়েছেন। তবে মুকুল বিজেপিতে বর্তমানে নিষ্ক্রিয় থাকলেও বিধানসভার নির্বাচনে তাকে সক্রিয় করতে পারে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। সেই সময় তৃণমূল ফের ভাঙন ধরানোর লক্ষ্যে কাজ শুরু করতে পারেন মুকুল। সেই কারণে তৃণমূলের ব্লক স্তরের কর্মীদের আইপ‍্যাকের সদস্যরা ফোন করে জানতে চাইছেন এখনো এলাকায় তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে কারা মুকুল ঘনিষ্ঠ রয়ে গিয়েছেন?

বর্তমানে তাদের রাজনৈতিক অবস্থান কি? তারা কতটা সক্রিয় বা নিষ্ক্রিয়? সংশ্লিষ্ট বিধানসভা কেন্দ্রের ফলাফল বদলাতে সক্রিয়তা কতটা প্রভাব ফেলতে পারে? শুধু মুকুল রায় নয় তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে কারা রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ তাদের রাজনৈতিক অবস্থান কি সেই বিষয়ে আই প্যাক এর পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হচ্ছে।

তৃণমূল কর্মীদের অনেকের মতে দলের ব্লক স্তরে নিচুতলার কর্মীদের কাছে খোঁজ নেওয়ার ফলে নিচু তলার কর্মীরা বুঝতে পারছেন মুকুলকে নিয়ে এখনও যথেষ্ট সমস্যা রয়েছে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের। 2021 সালের বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে ক্ষমতা দখলের লক্ষ্যে তৃণমূলের নির্বাচন কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের আইপ্যাক দলের মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠদের সন্ধান শুরু করাটা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহ