Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ভাইপো এবার স্বামী তোলানন্দ তীব্র কটাক্ষ লকেটের

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

নরেন্দ্র মোদীজি স্বামী বিবেকানন্দের বাণী দেখিয়ে সকলকে এগিয়ে যেতে বলেন। স্বামী বিবেকানন্দের আদর্শ বাণী কে সম্মান করেন। আর তৃণমূল সরকার বিবেকানন্দের ছবির উপর ভাইপোর ছবি দেয়। যেন মনে হচ্ছে স্বামী তোলানন্দ। আজ নাম না নিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) কে ভগবানপুরের বিজেপির সভা থেকে এভাবেই কটাক্ষ করেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে লকেট বলেন স্বামী বিবেকানন্দের নাম করে চারিদিকে বিশৃঙ্খলা চালাচ্ছে। কয়লা পাচার গরু পাচার বালি পাচার ত্রিপল পাচারে রয়েছে স্বামী ভাইপো নন্দ। পাশাপাশি করোনার ভ্যাকসিন বন্টন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কে কটাক্ষ করে লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সবকিছুতে চোট্টামি দুর্নীতি এই তৃণমূল সরকারের। ভ্যাকসিন দিয়ে এমন করছেন যেন কালীঘাটের বাড়িতে ভ্যাকসিন তৈরি হয়েছে।ভ্যাকসিন গোটা দেশবাসীকে দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চেষ্টা চালাচ্ছেন। করোনার সময় কেন্দ্রীয় সরকার চাল ডাল পাঠিয়েছিল সেই চাল নিজেদের মন্ত্রীদের পকেটে ঢুকে গিয়েছিল। তাই তৃণমূল সরকারকে চাল চোর সরকার বলা হয়। আজ সভা মঞ্চ থেকে লকেট চ্যাটার্জি স্লোগান তোলেন চাল চোর সরকার আর নেই দরকার ভ্যাকসিন চোর সরকার আর নেই দরকার। এই সরকারকে যত তাড়াতাড়ি বিদায় করা যায় ততই আমাদের মঙ্গল বলে দাবি জানান তিনি।পাশাপাশি কটাক্ষের সুরে লকেট বলেন আগামীকাল পৌষ সংক্রান্তি সবাই প্রার্থনা করুন এই দুর্নীতির সরকার থেকে মুক্তি পেতে গেলে বাংলায় ভারতীয় জনতা পার্টি যেন তাড়াতাড়ি চলে আসে।

আরো পড়ুন :বার্তা পরিষ্কার, শিশির চ্যাপ্টার ক্লোজড করতে চাইছে তৃণমূল, খোয়ালেন সভাপতি পদ


কৃষকদের বিষয়ে মুখ খোলেন আজ লকেট।তিনি বলেন বাংলায় কৃষকরা গত ১০ বছর ধরে কিছু পায়নি। বাংলার কৃষক দের নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এখন কৃষকদের নিয়ে দরদ দেখাচ্ছে তৃণমূল সরকার। কিন্তু তৃণমূল সরকার কৃষক বিরোধী সরকার। কৃষকদের যা বকেয়া আছে তা আগেই মেটাতে হবে। মরার সময় হরিনাম করছেন মুখ্যমন্ত্রী। এখন কৃষক সম্মান নিধি চালু করার কথা বলছেন। কিন্তু আমরা সরকার গড়লে তখনই কৃষক সম্মান নিধি চালু করব বলে হুশিয়ারি দেন আজ লকেট। পাশাপাশি তৃণমূল সরকারের দুয়ারে দুয়ারে সরকার প্রসঙ্গে তিনি বলেন দুয়ারে দুয়ারে সরকার করছে তৃণমূল কিন্তু ভারতীয় জনতা পার্টির মানুষের রান্না ঘরে পৌঁছে গিয়েছে মা-বোনেরা আশীর্বাদ করছেন। মা বোনে দের উপর অত্যাচার বাংলায় বেশি হয়। বাংলায় মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হওয়া শর্তেও বাংলার মহিলারা সুরক্ষিত নয়।

বাংলায় মহিলারা বেশি অত্যাচারিত। আজ লকেট মহিলাদের সুরক্ষার প্রসঙ্গে স্লোগান তুলে বলেন জয় মা দূর্গা জয় মা কালী আর নয় এই অত্যাচারী। তিনি বলেন প্রশাসনের উপর আর কোন ভরসা রাখবেন না মা বোনেরা পথে নামুন। পরিবর্তনের পরিবর্তন করতে গেলে আপনাদের রাস্তায় নামতেই হবে। যারা মা বোনে দের উপর অত্যাচার চালায় ধর্ষণ করে তাদেরকে তৃণমূল আশ্রয় দিয়ে থাকে। তৃণমূল সরকার টা তাসের ঘরের মতো ভেঙে যাচ্ছে।যারা মানুষের সেবার জন্য মানুষের উন্নয়নের জন্য কাজ করতে চাইছেন তারা ভারতীয় জনতা পার্টি তে আসছেন। ২০২১ এ তৃণমূল দলটা থাকবে না বলে ইঙ্গিত দেন তিনি। শেষ পর্যন্ত তৃণমূলে কোন লোক থাকবে না থাকবে পিসি ও স্বামী তোলা নন্দ বলে আজ কটাক্ষ করেন লকেট চট্টোপাধ্যায় (locket chattopadhyay)। নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ভোটের উত্তাপ ততোই বাড়ছে। আর ততোই বাড়ছে একে অপরের বিরুদ্ধে কটাক্ষ ও তোপ। যা নিয়ে সরগরম বঙ্গ রাজনীতি।