পায়েল-অনুরাগ কান্ডে এবার জড়াল ক্রিকেটারের নাম

1 min read

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।। কলকাতা ।।

নির্দেশক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে অভিনেত্রী তথা মডেল পায়েল ঘোষ যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন। তিনি এর জন্য আদালত এবং পুলিশের দারস্থও হন। তবে এইটুকুতেই তিনি থেমে ছিলেন না। টুইটারে তিনি লাগাতার নাম না করেই বিভিন্ন বলিউড তারকাদের নিয়ে নানানরকম টুইট করতে থাকেন। এর ফলস্বরূপ কিছু দিন আগেই ক্ষমা চাইতে হয় তাঁকে বলিউড অভিনেত্রী রিচা চাড্ডার কাছে।

ফের আরও একবার তিনি এই কান্ডের সঙ্গে এক ভারতীয় ক্রিকেটারের প্রসঙ্গ আনেন। তিনি বলেন, খেলোয়াড় ইরফান পাঠান নাকি তাঁর পারিবারিক বন্ধু, যাকে অভিনেত্রী নির্দেশক অনুরাগের আচরণের বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছিলেন। কিন্তু ইরফান নাকি বিষয়টিকে আমল দেননি, এমন বন্ধু হয়ে পাশে থাকবেন বললেও তিনি পাশে থাকেননি।

স্বভাবতই তাঁর এমন পোস্টে শোরগোল পড়ে টুইটারে। তিনি আরও জানান, অনুরাগ তাঁকে তাঁর বাড়িতে আসতে বলেছিলেন, এবং অভিনেত্রী তাঁর বদলে অন্য এক ব্যাক্তির হোলির পার্টিতে যেতে ইচ্ছুক ছিলেন, যে বিষয়ে ইরফান নাকি সবই জানত। তবে পায়েল এও দাবি করেছেন যে তিনি অনুরাগের বিষয়ে সব বললেও ধর্ষণের বিষয়ে কিছু বলেননি। দুইজন ভালো বন্ধু তো ছিলেনই, পারিবারিক সম্পর্কের খাতিরে বন্ধুত্ব যথেষ্ট গভীর ছিল। তবে বন্ধুত্বের দায়িত্ব কতজন পালন করেছেন, সেটাই দেখার। এই বিষয় নিয়ে কয়েক ঘন্টার মধ্যে জলঘোলা হতে শুরু করে এবং একটি নতুন তত্ত্ব পেশ হয় টুইটারে। পায়েলকে নাকি ইরফান হেনস্থা করেছেন, এমনটা রটে যায়।

এই রটনার সূত্রপাত নির্দেশক আনন্দকুমারের একটি পোস্ট থেকে, যার স্ক্রিনশট পায়েল শেয়ার করেন। তবে তিনি আদতে কি বলেছিলেন, তা স্পষ্ট নয়। কারণ নির্দেশক আনন্দ কুমারের ফেসবুক বা টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে কিছুই সেরকম তথ্য পাওয়া যায়নি। তাই বিষয়টি ভুয়ো কিনা, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। অন্যদিকে ক্রিকেটার ইরফান পাঠানের তরফেও এই বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া আসেনি।

সব মিলিয়ে পায়েলের বলিউডের বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে নানান ধরণের মন্তব্য, খেলোয়াড়কে নিজের বন্ধু বলে দাবি করা – এই সব নিয়ে টুইটারে তাঁকে ট্রোলিংএর শিকারও হতে হয়েছে। আসল ঘটনাটি ঠিক কি, অভিনেত্রী সত্যি বলছেন না মিথ্যে, ইরফান পাঠানের মত ক্রিকেটারের সঙ্গে এই বিষয়ের কি সম্পর্ক, তা নিয়ে ধোঁয়াশা আপাততঃ কাটছে না।