Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাংলার মসনদ দখলে বিজেপির চাবিকাঠি এখন ‘চোর চোর ‘ স্লোগান

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করার পর থেকেই লাগাতার বিজেপির হয়ে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী (Subhendu Adhikari)। প্রতিটি সভাতেই শুভেন্দু আক্রমণ শানাচ্ছেন পিসি ভাইপো বলে।তৃণমূল দলটা কে চোর ডাকাতের দল বলে বারবার কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব কে। কখনও তৃণমূলকে বিঁধতে বিজেপি নেতা নেত্রীরা বলেছেন কেন্দ্র থেকে যে চালডাল গম পাঠানো হচ্ছে তা চুরি করে নিচ্ছে তৃণমূল। এ রাজ্যে শাসক দলের নেতা-নেত্রীদের চাল চোর বলে বারবার আক্রমণ শানিয়েছেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ( Locket Chatterjee)।

বিজেপির (bjp) পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে চাল চোর তৃণমূল স্লোগানেই সাধারণ মানুষ তৃণমূল সরকারকে ২০২১ এ সরাবে। এছাড়া তৃণমূল দলটা চোরের কাটমানির দল এরকম অভিযোগ তো হামেশাই করে থাকেন বিজেপি নেতৃত্ব। প্রসঙ্গত আমফানের দুর্নীতি নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে মুশকিলের সম্মুখীন কম হতে হয় নি।যাদের ক্ষতিপূরণের টাকা পাওয়ার কথা তারা টাকা পাননি কিন্তু তৃণমূলের নেতা এবং জনপ্রতিনিধিরা নিজেদের এবং পরিবারের নাম তালিকায় ঢুকিয়ে টাকা নিয়েছে এই অভিযোগে সরব হয়েছিলেন ক্ষতিগ্রস্তরা। একটা সময় পঞ্চায়েতের বিভিন্ন প্রকল্পে কাটমানির টাকা ফেরানোর যে উদ্যোগ দেখা গিয়েছিল সেই ছবি তখন ধরা পড়েছিল।

আরো পড়ুন :ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, পার্টি অফিস দখলকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত ওকড়াবাড়ি

বিজেপি (bjp) তৃণমূল কংগ্রেস কে ত্রান চোর বলে সেই সময় প্রচুর প্রচার চালায়। যা মানুষের মধ্যে অনেকটাই তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রভাব ফেলেছিল। গতকাল শুভেন্দু অধিকারী ঝারগ্রাম এর সভা থেকে বলেছেন আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তোলাবাজ ভাইপোর পার্টি তৃণমূলকে হারাতে হবে। আমফানের টাকা চোর প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা টাকা চোর একশ দিনের টাকা চোর ,স্বচ্ছ ভারত মিশন এর শৌচাগারের টাকা হাওয়া করে দেওয়া তৃণমূলকে বাংলা থেকে একেবারে হাওয়া করে দেওয়ার বার্তা দেন শুভেন্দু।আবার ভোটের মরসুমে দেওয়াল লিখন কে কেন্দ্র করে ও দেওয়াল চুরির অভিযোগে তৃণমূলকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে বিজেপি। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির মূল লড়াই টা তৃণমূল কংগ্রেসের সাথে।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশা, ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের টাকা, রেশনের চাল ডাল বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে তৃণমূলকে কোণঠাসা করতে চাইছে বিজেপি।আবার বর্তমানে বিজেপির নেতারা প্রকাশ্যে অভিযোগ তুলছেন গরু পাচার কয়লা পাচার বাংলাদেশে চোরাচালানের কোটি কোটি টাকা সরাসরি ভাইপোর হাতে যায়। তাই তারা তোলাবাজ ভাইপো হটাও স্লোগান দিচ্ছে। সব মিলিয়ে বিজেপি এখন তৃণমূল দল টাকে কে বারবার চোর বলেই আখ্যা দিতে চাইছে। ২০২১ এর লড়াইয়ের তৃণমূলকে উৎখাত করতে বিজেপির এখন প্রধান চাবিকাঠি চোর চোর স্লোগানে ই হয়ে দাঁড়াচ্ছে এমনটা মনে করছেন অনেকে। ক্রমাগত বিজেপি বিভিন্ন প্রচারে তৃণমূল কে চোর চোর বলে স্লোগান তুলছে তা কতখানি প্রভাব পড়ছে আমজনতার মনে তা অবশ্য ভোটবাক্সে বোঝা যাবে।