সুশান্ত তদন্তে নয়া মোড়, রিয়া চক্রবর্তীর কাছে মাদক পৌঁছাতো বিশেষ পথে!

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু, রিয়া চক্রবর্তীর অভিনেতার মৃত্যেুর ৬ দিন আগে নিজের ফ্ল্যাটে ফিরে যাওয়া, হোটেল ব্যবসায়ীর সঙ্গে মাদক নিয়ে চ্যাট করা, তদন্তের জেরাতে যাওয়ার জন্য অন্যের গাড়ি ব্যবহার করা এবং আরো অনেক বিষয় প্রকাশ্যে এসেছে। 

বলিউডে সিনেমার সংখ্যা হয়ত তাঁর বেশি নয়, কিন্তু সুশান্ত মৃত্যু তদন্তে যেভাবে রিয়ার জীবনের নানান তথ্য প্রকাশ্যে আসছে, তা নিঃসন্দেহে প্রমান করে অভিনেত্রীর বিলাসবহুল জীবনের অস্তিত্ব। বিভিন্ন পেশার মানুষের সঙ্গে তাঁর বিভিন্ন ধরণের যোগাযোগ মোটেই ভালো কিছু ইঙ্গিত করছে না। 

একটি সর্বভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশ্যে আনা হয়েছে অভিনেত্রীর সঙ্গে মাদক চক্রের যোগাযোগ কিভাবে হোত।  মাদক চক্রের ডিলার জাইদ ভিলাত্রার সঙ্গে পরিচয় হয় বশিত পরিহারের, যে রিয়ার ভাি সৌভিকের ঘনিষ্ট ছিল। সৌভিকের সঙ্গে জাইদের পরিচয় হয় বশিত সূত্রে। 

আরো পড়ুন: কখনও ড্রাগ নেননি, সিবিআই জেরায় জানালেন রিয়া

সৌভিক জাইদের নম্বর পেয়ে সুশান্তের প্রাক্তন হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডার সঙ্গে কথা বলে এবং জায়েদর সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করে। এরপর জাইদ কিছু মাদক পাঠানোর ব্যবস্থা করে সৌভিককে। 

এইভাবে রিয়া, সৌভিকের কাছে মাদক এসে পৌঁছায়। এছাড়াও সূত্রের তরফে জানানো হয়েছে, ইডি তদন্ত করে আরও বেশ কিছু ওয়াটঅ্যাপ চ্যাটের সন্ধান পেয়েছে, যেখানে মাদক সংক্রান্ত বেশ কিছু কথা হয়েছে রিয়ার সঙ্গে অন্যান্য ব্যক্তিদের। বহু বেআইনি মাদক সেবনের কথা ও উল্লেখ রয়েছে সেই সব চ্যাটে। তারা এও আলোচনা করেছে কিভাবে সেই সব মাদক আনানো যায়।