Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আজ সারাদিন আপনার মহাযজ্ঞ নিয়ে আলোচনা,আপনি কিছু বলবেন? প্রথম কলকাতার কাছে মুখ খুললেন অনুব্রত

1 min read

।। শিবপ্রিয় দাশগুপ্ত ।।


বঙ্গ রাজনীতির একটি জনপ্রিয় নাম অনুব্রত মণ্ডল (Anubrat Mandal)। বিহারের লালু প্রসাদ যাদবের সঙ্গে রাজনৈতির রঙ্গ তামাসায় এই রাজ্যের অনুব্রত মণ্ডলের নাম করা যেতেই পারে। অনুব্রত মণ্ডল মুখ খুললেই খবর, আলোচনা, এমনই তাঁর জনপ্রিয়তা। সেই অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrat Mandal) সঙ্গে তাঁর “মহাবিজয় যজ্ঞ” নিয়ে সাক্ষাৎকার নিয়েছি আমরা প্রথম কলকাতার তরফে। তিনি কী বললেন?


প্রঃ কেন এই “মহাবিজয় যজ্ঞ”?
উঃ আমার দল তৃণমূল যাতে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে, তাই এই ” মহাবিজয় যজ্ঞ”।


প্রঃ আর কোনও কারণ নেই?
উঃ আছে। আমি চাই বিজেপি যেন পরাজিত হয়। আমাদের দিদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) যেন আবার মুখ্যমন্ত্রী হন। হবেও তাই।


প্রঃ এবারের বিধানসভা নির্বাচন কী আগের বারের তুলনায় কঠিন? তাই কী এবার অনুব্রত মণ্ডল দেবদেবীর দ্বারে?
উঃ নানা। তা কেন? কোনও কঠিন নির্বাচন এটা নয়। জলের মতো সোজা। আর আমি তো বরাবরই পুজো নিয়ে থাকি। রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে শিবের নাম যপ করি, দুর্গার নাম যপ করি আধঘণ্টা। তারপর স্নান শেষে বাড়িতে তিনটি শিবলিঙ্গে বেলপাতা দিই। শিবের কাছে দলের জন্য, আমার মেয়ের জন্য ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) জন্য বেলপাতা দিই। এটা আমার দৈনিক কাজ। আমি ঈশ্বরে ভরসা রাখি। তাই “মহাবিজয় যজ্ঞ” করছি। দলের ক্ষমতায় আসার জন্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাতে মুখ্যমন্ত্রী হন তার জন্য।


প্রঃ আপনার বিরুদ্ধে জেলার বিজেপি নেতা শ্যামাপদ মণ্ডলের অভিযোগ, আপনি তোলাবাজ। আপনার পুজো দেবতা নেবেন না। কী বলবেন?
উঃ কার পুজা দেবতা নেবেন, কার নেবেন না সেটাও বিজেপি (bjp) ঠিক করে দিচ্ছে এখন। বেশ বেশ। আমার কিছু বলার নাই। যা বলার মা’কে বলেছি। মা যা করার করবেন।


প্রঃ আপনার ভোটের অস্ত্র তো গুড়-বাতাসা, চড়াম-চড়াম, তা হলে এ কী বদলে যাওয়া অনুব্রত?
উঃ আগেকার দিনে রাজা, মহারাজারা যুদ্ধে যাওয়ার আগে “মহাযজ্ঞ” করতেন। মনে করুন এটাও সেই রকমই “মহা বিজয় যজ্ঞ”। তবে এবারের “মহাবিজয় যজ্ঞ” হবে ১ কুইন্টাল ১১ কিলো বেল কাঠ, তিন টিন ঘি ও তাতে ১০০১ টি বেল পাতা আহুতি দিয়ে। যজ্ঞের দায়িত্বে থাকবেন ২২ জন পুরোহিত। হবে আড়াই থেকে তিন হাজার মানুষকে শিবজ্ঞানে আপ্যায়িত করা। এই কারণেই এই যজ্ঞের নাম দিয়েছি “মহাবিজয় যজ্ঞ”, জয়ী আমরা হবোই। দিদিই আবার মুখ্যমন্ত্রী হবেন।