স্বস্তিকার কালো ব্রা -র স্ট্র্যাপ দেখা যাচ্ছে ! হামলে পরেছে নেটদুনিয়া

1 min read

।। শ্রীপর্ণা মুখোপাধ্যায় ।।

তাঁকে নিয়ে চুন খসলেই তো বিতর্ক। অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, বিতর্ক তাঁর পিছু ছাড়ে না, তবে বিতর্কে ভ্রুক্ষেপ না রেখেই এগিয়েছেন বরাবর অভিনেত্রী। খোলামেলা পোশাকে অনেক বার তিনি স্ক্রিন এর এসেছেন, বোল্ড দৃশ্যে দেখা গেছে অভিনেত্রীকে আর যে সব কারণেই মুহুর্মুহ বিতর্কে জড়াতে হয়েছে অভিনেত্রী কে। তাই বলে কি পোশাকে -চরিত্রে বদল এনেছেন অভিনেত্রী?

না একেবারেই না বরং কাজের গতি বেড়েছে তাঁর।সম্প্রতি “তাসের ঘর”-এ সুজাতার ব্রা দেখিয়েছেন/দেখা যাচ্ছে স্বস্তিকার, হামলে পড়েছে নেট দুনিয়া, একের পর এক প্রশ্ন ধেয়ে আসছে, “কালো অন্তর্বাস? “কেউবা বলেছেন, পরিচালক “অন্তর্বাস দেখালেন কেন? “প্রথম দিকে চুপ থাকলেও পড়ে মুখ খুলেছেন স্বস্তিকা, তাঁর সাফ জবাব,”নায়কদের কেন খাটো আন্ডারওয়্যারে দেখানো হয়? তাঁদের খালি গা কেন বক্স অফিসে লক্ষ্মীলাভে সাহায্য করে?

কোনও দিন জানতে চেয়েছেন? না। কারণ, এই দৃশ্যগুলো এত কুল অ্যান্ড ক্যাজুয়াল যে কারোর মাথাতেই আসে না, এ সব নিয়েও কথা বলা যেতেই পারে। কিন্তু মেয়েদের পোশাকের ফাঁক দিয়ে অন্তর্বাস উঁকি দিলেই লোভী চোখের উঁকিঝুঁকি! হাজারো প্রশ্ন। কেন? এটাকেও কেন খুব স্বাভাবিক ঘটনা বলে মানতে পারেন না কেউ!’’কথা গুলো সত্যিই। সময় বদলাচ্ছে তবু গতানুগতিক কিছু ধারণার বদল একাংশ করতে পারছেন না।

ব্রা আলাদা কোনও গ্রহ থেকেই আসা প্রাণী বা বস্তু নয়, অথবা, ব্রা এই সমাজের শত্রু নয়, ব্রা বেড়িয়ে থাকলে সংস্কৃতি নষ্ট হয় না পোশাকের ই অন্যতম ব্রা ঠিক যেমন জাঙ্গিয়া। কিন্তু ব্রা নিয়ে কিছু মানুষের কৌতূহল আজও বাড়বাড়ন্ত! জানা নেই কোথায় কবে শেষ হবে কিছুজনের এমন “বদ্ধ -সংকীর্ণ “চিন্তা!!বিষয় টি বোধ হয় গুরুত্ব দিয়ে এসেছে ভাবার সময়।।