ফের মুকুলকে নিয়ে জল্পনা !


।। রাজীব ঘোষ ।।

দীর্ঘদিন আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন মুকুল রায়। দলের পক্ষ থেকে কোনো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব তিনি এখনো পাননি। তাকে মন্ত্রিত্ব দেওয়া হতে পারে এবং গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে একাধিকবার শোনা গেলেও এখনো পর্যন্ত সেটা তাকে দেওয়া হয়নি। এই বিষয়কে কেন্দ্র করে রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা শুরু হয়।

সূত্রের খবর নদীয়ার কৃষ্ণগঞ্জ এর তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস এর খুনের মামলায় চার্জশিটে মুকুল রায়ের প্রতি তৃণমূল সরকারের নরম মনোভাব রয়েছে বলে সরাসরি নাম না করেও বিজেপির শীর্ষ মহলের ইঙ্গিত মনে করা হচ্ছে। চার্জশিটে রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার এর নাম অভিযুক্ত হিসেবে থাকলেও মুকুলের নাম অভিযুক্ত হিসেবে নেই। সেখানে সন্দেহভাজন বলে তার নাম রয়েছে।

আরো পড়ুন : বৈশাখী প্রসঙ্গে কি বললেন সায়ন্তন

সিআইডি আরো তদন্ত করার জন্য সময় চেয়েছে। এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন ভোট যত এগিয়ে আসছে দলের মধ্যে বিভাজন এবং পরস্পরের প্রতি সন্দেহ তৈরি করার চেষ্টা করছে তৃণমূল। তাদের কৌশল মনোবল ভাঙার চেষ্টা করা। এর আগেও মুকুলের সঙ্গে পুরনো দল তৃণমূলের যোগাযোগ হচ্ছে বলে রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা শুরু হয়েছিল।

যদিও মুকুল রায় এবং তৃণমূল কোনো পক্ষ থেকেই এই জল্পনার সমর্থন পাওয়া যায়নি। এই প্রসঙ্গে তৃণমূল সাংসদ এবং আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন মুকুলের নাম অভিযুক্ত হিসেবে সত্যজিৎ মামলার চার্জশিটে থাক এটাই কি দিলীপ ঘোষ চাইছেন। সারদা মামলায় মুকুল সন্দেহভাজন এখনো অভিযুক্ত নন। এটা জানা উচিত। এই প্রসঙ্গে মুকুল বলেন কেন চার্জশিটে নাম আছে সন্দেহভাজন হিসেবে রয়েছে এসব আমি জানিনা। তৃণমূল বিজেপি তে বিভাজনের চেষ্টা করছে দিলীপ ঘোষের এই বক্তব্য যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।