Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ভিড় বাড়াতে ডাক পড়ল সোহমের, বহিরাগত ইস্যুতে সায় অভিনেতার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

ভোট বড় বালাই। নির্বাচনের সঙ্গে মানুষের সম্পর্ক বড় নিবিড়। তাই যে কোনো নির্বাচনী সংক্রান্ত কর্মসূচিতে রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীরা তাকিয়ে থাকেন মানুষের সমর্থনের দিকে। মিটিং মিছিলে ভিড় না হলে মানুষ বলবে এদের পাশে লোক নেই। শনিবার বর্ধমানে রোড শো করেছেন বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা। সেখানে বিপুল মানুষ উপস্থিত ছিলেন। বর্ধমান ক্লক টাওয়ার থেকে শুরু হয়ে মিছিল শেষ হয় কার্জন গেট এর সামনে। সেই মিছিলের পর আজ রবিবার পাল্টা রোড শো করল তৃণমূল। আর সেখানে প্রধান চরিত্র হিসেবে উপস্থিত থাকলেন বিশিষ্ট অভিনেতা তথা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সহ-সভাপতি চিত্রতারকা সোহম চক্রবর্তী (Soham Chakraborty) । গত বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিটে তিনি লড়াই করেছিলেন।

যদিও পরবর্তীকালে ধারাবাহিকভাবে তাঁকে তৃণমূলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে সেভাবে দেখা যায়নি। কিন্তু রবিবার তৃণমূলের রোড শোতে মুল আকর্ষণের কেন্দ্রে ছিলেন তিনি। ট্যাবলোতে উঠে তিনি দীর্ঘ পথ অতিক্রম করেন। হাত নাড়তে থাকেন পাশে দাঁড়িয়ে থাকা জনতার উদ্দেশ্যে। এদিনের মিছিলে বহু মানুষ যোগ দিয়েছিলেন। দলীয় পতাকার রঙে অসংখ্য বেলুন দিয়ে সাজানো হয়েছিল ট্যাবলো। সোহম ছাড়াও ছিলেন পূর্ব বর্ধমানের তৃণমূল জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথসহ অন্যান্য নেতারা। বর্ধমানের টাউন হল থেকে শুরু হয়ে মিছিল শেষ হয় গোলাপবাগে। নাড্ডার মিছিলে ব্যাপক ভিড় হওয়ায় তৃণমূলের পাল্টা জবাব দেওয়ার প্রয়োজন ছিল। সেই কারণেই তারা চিত্রতারকা সোহমকে নিয়ে মিছিলের আয়োজন করেছে।

অভিনেতার টানে আরো বেশি মানুষ আসবেন, এটাই তাঁদের লক্ষ্য ছিল। এদিন সোহম বলেন, বাংলার মানুষ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) পাশেই আছেন। কৃষক বিরোধী আইন আমরা মানব না। বাংলার সংস্কৃতি যারা জানেন না, তাঁদেরই আমরা বহিরাগত বলছি। বাংলায় ফের তৃণমূল সরকার গঠিত হবে। এভাবেই তৃণমূলের সমর্থনে বক্তব্য রাখতে দেখা যায় তাঁকে। উল্লেখ্য বহুদিন ধরেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে বহিরাগত বলে তোপ দাগছেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। গতকাল রাজ্যে এসেছিলেন বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা (JP Nadda)। তাঁকেও তৃণমূল বহিরাগত বলে কটাক্ষ করছে। এবার দেখা গেল সরাসরি যিনি প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে জড়িত নন, সেই অভিনেতা সোহম পর্যন্ত সুর মিলিয়েছেন সেই বিষয়ে।

তৃণমূলে চলচ্চিত্র জগৎ থেকে এসে যারা সাংসদ হয়েছেন সেই দেব, মিমি চক্রবর্তী, নুসরত জাহানদের কিন্তু এখনও পর্যন্ত বহিরাগত ইস্যুতে কিছু বলতে শোনা যায়নি। যেটা আজ শোনা গেল অভিনেতা সোহমের মুখে। তৃণমূলের যুব সংগঠনের পদ থাকলেও সোহম সরাসরি রাজনীতিতে যুক্ত নন। কিন্তু তিনি এদিন পুরোপুরি কথা বলেছেন রাজনৈতিক নেতার মতোই। এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল সভাপতি স্বপন দেবনাথ বলেন, মানুষের ভিড় বলে দিচ্ছে তারা কার সঙ্গে আছে। এই জেলা থেকে সব আসনে তৃণমূল বিপুল জয় পাবে। বিজেপি এবং তৃণমূল দুটি দলকেই দেখা যাচ্ছে দ্রুততার সঙ্গে পাল্টা কর্মসূচি করতে। গতকাল বিজেপি বর্ধমানে রোড শো করার পর সেই পথে হেঁটেই আজ পাল্টা মিছিল করল তৃণমূল (tmc)। বিধানসভা নির্বাচন পর্যন্ত এই ধারা যে চলতেই থাকবে, তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।