তৃণমূলের কোঅর্ডিনেশন কমিটির প্রথম বৈঠকে অনুপস্থিত শুভেন্দু অধিকারী

।। প্রথম কলকাতা ।।

২৩ জুলাই ভার্চুয়াল বৈঠক করে দলে সাংগঠনিক রদবদল ঘটান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।রদবদলের পর শুক্রবার প্রথম বৈঠক তৃণমূলের কোঅর্ডিনেশন কমিটির।সেখানে অনুপস্থিত ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। নতুন রাজ্য কমিটি ঘোষণার পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সে দিন একটি ২১ জনের কমিটি গড়ে দেন। সেটিই কোঅর্ডিনেশন কমিটি। সেই কমিটির থেকে সাত জনকে নিয়ে আবার স্টিয়ারিং কমিটি গড়ে দেন তৃণমূলনেত্রী।

ওই স্টিয়ারিং কমিটি হল কার্যত রাজ্য স্তরের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারক কমিটি। শুভেন্দু অধিকারীকে দু’টি কমিটিতেই রাখা হয়েছে। কিন্তু জেলা পর্যবেক্ষকের পদটা উঠে যাওয়ায় দায়িত্ব কমে যায় শুভেন্দুর। কারণ রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের যেসব পর্যবেক্ষকরা নানা জেলার দায়িত্বে ছিলেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম পরিবহণমন্ত্রী তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী।

দলের ওই সিদ্ধান্তের পরই শুভেন্দুর ঘনিষ্ঠমহলের বক্তব্য ছিল, দাদাকে দল মর্যাদা দিল না। সামনেই ২০২১ বিধানসভার নির্বাচন। এতে দলের ক্ষতি হবে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, দলে ভারসাম্যের কথা বলা হলেও কার্যত শুভেন্দুকে ক্রমে কোনঠাসা করে দেওয়া হয়েছে। এদিকে এদিন শুভেন্দুর অনুপস্থিতি জল্পনা অনেকটাই উস্কে দিল।