ইমিউনিটি বাড়ানোর টোটকা সঞ্জীব কাপুরের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

ভারতীয়রা সবসময় বিশ্বাস করেন যে, রোগ নিরাময়ের চেয়ে প্রতিরোধই ভালো।কোভিড 19 রোগটি যবে থেকে আমাদের জীবনে এসেছে তবে থেকে শোনা যাচ্ছে ইমিউনিটি বাড়াতে হবে।যাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম বা অন্য বড় অসুখে ভুগছেন যেমন ডায়াবেটিস হৃদরোগ অ্যাজমা রোগীদের করোনাভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি কথা বলা হচ্ছে।ইমিউনিটি হলে মানবদেহে নিজস্ব রোগ প্রতিরোধের ব্যবস্থা।এই প্রক্রিয়ায় সাধারণত দেহের জন্য উপকারী।

কিন্তু কোন কোন সময় অধিকমাত্রায় ক্রিয়াশীল হয়ে গেলে তা ক্ষতিকারক বটে। ইমিউনিটি ব্যবস্থা সব সময় ভারসাম্য রাখা দরকার।ইমিউনিটি দুই প্রকার জন্মগতভাবে প্রাপ্ত রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং অর্জিত প্রতিরোধ ক্ষমতা।বাড়িতে ইতিমধ্যেই খাদ্যাভাসের বদল এনেছেন বহু মানুষ জন।কি খেলে করো না হবে না,কিভাবে থাকলে করোনার কবল থেকে মুক্ত হওয়া যাবে তা নিয়ে চিন্তিত সকলে।

শেফ সঞ্জীব কাপুর জানিয়েছেন এই সময় হালকা খাবার খেতে হবে।
তেল-মসলাযুক্ত খাবার এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।
যে খাবার এখন খাওয়া উচিত সেগুলো হলো ভিটামিন বি 12,
ভিটামিন বি 3
ভিটামিন সি যুক্ত খাবার।
এছাড়াও প্রোটিন এবং অবশ্যই মৌসুমী ফল ও সবজি খাওয়া প্রয়োজন।
শিশু ও বয়স্কদের নানান রকমের স্যালাড, শাকসবজি মৌসুমী ফল অবশ্যই রাখতে হবে।

পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন করোণা সংক্রমণে বিরুদ্ধে লড়াই চালাতে গেলে মনকে তর তাজা রাখতে হবে এবং যথেষ্ট পরিমান ঘুমের প্রয়োজন। সুতরাং চিন্তা কমানোর সঠিক সময় ঘুমোন।