হাইকোর্টের কোর্টের দ্বারস্থ শচীন পাইলট


।। রাজীব ঘোষ ।।

রাজস্থানের উপমুখ্যমন্ত্রী ও প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে শচীন পাইলট কে অপসারণ করার পর অশোক গহলৌত শিবির তৎপরতা বাড়িয়েছে। স্পিকার সি পি যোশী কে দিয়ে বিধায়ক পদ খারিজের প্রশ্ন তুলে চিঠি পাঠানো হয়েছে। শচীন পাইলট সহ তার অনুগামী ১৮ জন বিধায়ক কে স্পিকার সি পি যোশী তাদের নোটিশ পাঠিয়ে জানতে চেয়েছেন তাদের বিধায়ক পদ কেন খারিজ করা হবেনা।

দু’দিনের মধ্যে ব্যাখ্যা দিতে হবে। নয়তো শচীন দের আইনী লড়াইয়ে যেতে হবে। কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিংভির সাহায্য চেয়ে ছিলেন শচীন পাইলট। কিন্তু কংগ্রেস নেতৃত্ব কে মনু সিংভি আইনি পরামর্শ দিচ্ছেন। যাতে শচীনদের বিধায়ক পদ খারিজ হয়। সরকারও না পড়ে। কারণ শচীন পাইলট তার অনুগামীদের বিধায়ক পদ হয়ে গেলে ২০০ আসনবিশিষ্ট রাজস্থান বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা কমে এলে অশোক এর সুবিধা হবে।

শচীন পাইলট বিধায়ক পদের বিষয়টি নিয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হচ্ছে। তাকে উপ মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে সরাতে সফল হলেও যাতে বিধায়ক পদ থেকে তাকে খারিজ করতে না পারেন সেই বিষয়ে যাবতীয় পদক্ষেপ শুরু করেছেন শচীন পাইলট। রাজস্থানের রাজনৈতিক সমীকরণ যে বাকি রয়েছে সেটা মনে করছে অভিজ্ঞ মহল।