Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবসেই ছন্দপতন ঘটলো সিঙ্গুরে, অনুপস্থিত থাকলেন মাষ্টারমশাই

1 min read

।। ময়ুখ বসু ।।

আজ ১ জানুয়ারি। তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবস। এই প্রতিষ্ঠা দিবসে এবার তৃণমূলের কাছে নতুন চ্যালেঞ্জ। ইতিমধ্যেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের অনেক হেভিওয়েট নেতা। অনেকে এখনও তৃণমূলে থেকেও বেসুরো বেজে চলেছেন। ছন্দপতন ঘটে চলেছে দলের অন্দরেও। বিভিন স্থানে এখনো দলীয় অসন্তোষ স্পষ্ট। হাজার চেষ্টা করেও দলের অসন্তোষকে যেন সামাল দিতে পারছে না তৃণমূল। দলে থেকেই দলের এক নেতা অপর নেতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উদগিরন করে চলেছেন।

এই ধারা একুশের ভোটের আগে অব্যাহত। এরইমধ্যে দলের প্রতিষ্ঠা দিবসেই ভিন্ন চিত্র দেখা গেলো একটা সময় ভূমি আন্দোলনের অন্যতম পীঠস্থান হুগলির সিঙ্গুরে। সিঙ্গুরে তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষ্যে তৃণমূলের পতাকা উত্তোল করলেন বেচারাম মানা। কিন্ত সেই অনুষ্ঠানে দেখা গেলো না সিঙ্গুরের মাষ্টারমশাই রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে। যে মাষ্টারমশাইকে ঘিরে সিঙ্গুরের মাটিতে বরাবরই রয়েছে অন্য এক আবেগ। সেই মাষ্টারমশাই কেন তৃণমূলের প্রতিষ্ঠাদিবসের অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকলেন তা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন। অবশ্য গত কিছুদিন ধরেই প্রকাশ্যে বেচারাম মান্নাকে ( Becharam Manna) নিয়ে বিদ্রোহ প্রকাশ করেছেন তিনি।

নতুন বছর নতুন আশা প্রথম কলকাতা চাইছে আপনাদের ভালোবাসা

নতুন বছর নতুন আশা প্রথম কলকাতা চাইছে আপনাদের ভালোবাসা

Posted by prothomkolkata.com on Thursday, December 31, 2020

মূলত, সিঙ্গুরে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি নির্বাচন নিয়ে বেচারামের সঙ্গে শুরু হয় তাঁর বিরোধ। বেচারাম ঘনিষ্ঠকে কেন সিঙ্গুরের ব্লক সভাপতি নির্বাচিত করা হচ্ছে তা নিয়েই প্রশ্ন তোলেন রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। আর সেখান থেকেই শুরু হয় বিদ্রোহ। যার আঁচ এদিন দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষীকীর সভাতেও দেখা গেলো। অনুপস্থিত থাকলেন মাষ্টারমশাই। ফলে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতেই অস্বস্তি বাড়লো তৃণমূলের। এমনিতেই সিঙ্গুরের মাটিতে এখন পদ্মের যথেষ্ট বাড়বাড়ন্ত। গত লোকসভা নির্বাচনে এই সিঙ্গুরে জয়ী হয়েছেন বিজেপির লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee)। ফলে দলীয় রাশ আজ অনেকটাই আলগা তৃণমূলের।

সেখানে দাঁড়িয়ে দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে যেভাবে দলের অন্দরের অসন্তোষকে প্রকাশ্যে এনে দলীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকলেন রবীন্দ্রনাথ ঘোষ তাতে সিঙ্গুরের মাটিতে তৃণমূলে ভাঙ্গনের রেখা যেন ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। অন্যদিকে, দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে এক সময়ে ভূমি আন্দোলনের অপর এক পীঠস্থান নন্দীগ্রামে এদিন সভা করবেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী। গত বছর তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবসে শুভেন্দু একাই নন্দীগ্রামে তৃণমূলের পতাকা উত্তোলন করেছিলেন। সেখানে দাঁড়িয়ে এবারে বিজেপির পতাকা হাতে সেই নন্দীগ্রামেই সভা করবেন তিনি। ফলে স্বাভাবিকভাবেই চাপ বাড়বে তৃণমূলের উপরে।