চট্টগ্রাম বন্দরে মজুদ বিস্ফোরক ও ঝুঁকিপূর্ণ দ্রব্য সরিয়ে নেওয়ার সুপারিশ

1 min read

।।চট্টগ্রাম ব্যুরো, বাংলাদেশ।।

লেবাননের বৈরুতের বন্দরে সম্প্রতি সংঘটিত ভয়াবহ বিস্ফোরণের নেপথ্যে বন্দরে বিস্ফোরক মজুদের বিষয়টি সামনে চলে আসায় চট্টগ্রাম বন্দরে মজুদ বিপজ্জনক বিস্ফোরক ও ঝুঁকিপূর্ণ দ্রব্যাদি দ্রুত সরিয়ে ফেলার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

একই সঙ্গে মাতারবাড়ী উন্নয়ন প্রকল্প ও বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন-বিএসসির সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গৃহীত জরুরি প্রকল্পগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের সুপারিশ করা হয়।

জাতীয় সংসদ ভবনে গতকাল অনুষ্ঠিত বৈঠকে এসব সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম। নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, রণজিৎ কুমার রায়, মাহফুজুর রহমান, ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল ও মো. আছলাম হোসেন সওদাগর বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম সাংবাদিকদের বলেন, বৈরুতের বন্দর এলাকায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে অনেক লোক মারা যায়। একটি বিস্ফোরকের ডিপোয় আগুন লাগার পর ওই বিস্ফোরণ ঘটে। চট্টগ্রাম বন্দর ও তার আশপাশ এলাকায় এমন কোনো বিস্ফোরক দ্রব্য থাকলে তা দ্রুত সরিয়ে ফেলার সুপারিশ করা হয়েছে।

এ ছাড়া মাতারবাড়ী উন্নয়ন প্রকল্পটি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প। এটি বাস্তবায়ন হলে বন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষকে কাজের গতি বাড়িয়ে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পসমূহ দ্রুত শেষ করার তাগিদ দেওয়া হয়েছে। বৈঠকে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভিন্ন সংস্থার প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।