Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

লোকাল ট্রেনে জনসংযোগ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের

।। শর্মিলা মিত্র ।।

ট্রেনের মধ্যে ইতিমধ্যেই প্রচার সেরে নজর কেড়েছেন হাবরা বিধানসভা কেন্দ্রের ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী রাহুল সিনহা। এবার, স্কুটি, গোরুর গাড়ি, নৌকা, সাইকেলের পর লোকাল ট্রেনে চড়ে প্রচার সারলেন চুঁচুড়ার ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়। আজ সকালে চতুর্থ দফার ভোটের আগে ব্যান্ডেল স্টেশনে টিকিট কেটে ট্রেনে চড়ে প্রচার সারেন চুঁচুড়ার বিজেপি প্রার্থী।

ব্যান্ডেল থেকে চুঁচুড়া স্টেশন পর্যন্ত যান তিনি। ট্রেনে নিত্যযাত্রীদের সঙ্গে কথাও বলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। শোনেন নিত্যযাত্রীদের অভিযোগও। ব্যান্ডেল থেকে ট্রেনে করে মহিলা মোর্চা কর্মীদের সঙ্গে চুঁচুড়া পর্যন্ত যান লকেট চট্টোপাধ্যায়। ব্যান্ডেল স্টেশনে হকারদের সমস্যার কথাও শোনেন বিজেপি প্রার্থী।

আজ সকালে প্রথমে ব্যান্ডেল স্টেশনে টিকিট কাটতে দেখা যায় লকেট চট্টোপাধ্যায়কে। টিকিট হাতে ছবি তুলতেও দেখা যায় তাঁকে। এরপর স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে সকলের সঙ্গে হেঁটে গিয়ে ট্রেনে ওঠেন তিনি। ট্রেনের সকল নিত্যযাত্রীদের উদ্দ্যেশে হাত জোড় করে প্রণাম করার পাশাপাশি ট্রেনের আসনে বসে সকলের সঙ্গে আলাপ চারিতায় মাতেন তিনি।

ট্রেনের মধ্যেই সাংবাদিকদের লকেট চট্টোপাধ্যায় জানান, ‘স্কুটি, গোরুর গাড়ি, নৌকা, সাইকেলে গেছি ট্রেনটা কেন বাদ থাকে। ট্রেন জনসংযোগ করার ভালো জায়গা’। অনেক দূরের মানুষের একমাত্র পরিবহণের মাধ্যম ট্রেন। তাই সকলের সঙ্গে জনসংযোগ করার জন্যই ট্রেনকে বেছে নিয়েছেন বলে জানান লকেট চট্টোপাধ্যায়।

আরো পড়ুন : মোদির সভায় ভিড় জমাতে ১০০০ টাকার কুপন বিলি করছে বিজেপি, অভিযোগ সুখেন্দুর

পাশাপাশি এদিন হুগলিতে তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থনে প্রচারে আসছেন জয়া বচ্চন। এই প্রসঙ্গে সাংবাদিকরা লকেট চট্টোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, ‘করোনার সময় জয়াজি কোথায় ছিলেন? আমফানের সময় কোথায় ছিলেন? তখন আসননি কেন?’ পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, ‘অভিনেত্রী হিসেবে জয়া বচ্চনকে শ্রদ্ধা করি। ওঁর ছবিও ভালো লাগে।’ ‘কিন্তু বাংলার রাজনীতির সঙ্গে তাঁর কোনও সম্পর্ক নেই।’ বলেও মন্তব্য করেন লকেট চট্টোপাধ্যায়।

তিনি আরও বলেন, ‘উনি কী জানেন হায়দ্রাবাদের ঘটনায় উনি যেমন সরব হয়েছিলেন সেরকম হাজার হাজার ঘটনা এখানে বাংলায় ঘটেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে। সেটাতো উনি জানেন না’। ‘উনি কিছুই জানেন না। বাংলার রাজনীতির সঙ্গে ওনার পরিচয় নেই। উনি ভালো থাকুন। উনি সুস্থ থাকুন।’ মন্তব্য লকেট চট্টোপাধ্যায়ের। এইভাবেই আজ লোকাল ট্রেনে চেপে অভিনব প্রচার সেরে নজর কাড়েন চুঁচুড়া বিধানসভা কেন্দ্রের ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়।