পৌষ মেলা করতে বিশ্বভারতী কেন্দ্রের আর্থিক সাহায্য চাইবে

।।সুদীপ মান্না।।


১০০ বছরেরও প্রাচীন পৌষ মেলা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ২ মাস পরে শুক্রবার বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ জানাল, মেলার আয়োজন করতে কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রস্তুত যদি কেন্দ্র সরকার থেকে আর্থিক সাহায্য পাওয়া যায়।

সূত্রের খবর, উপাচার্য বিদ্যুত্ চক্রবর্তী একটি বৈঠকে জানিয়েছেন, যদি মেলা করতে হয়, তবে স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী সহ সব পক্ষের সহযোগিতা দরকার।বিশ্বভারতীর অশিক্ষক কর্মচারীদের সঙ্গে বৈঠকে উপাচার্য বলেন, বড় মাপে পৌষ সেলা আয়োজন করার মত আর্থিক সঙ্গতি বিশ্বভারতীর নেই। বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রকে সাহায্যের আবেদন জানাবে।

বিশ্বভা্রতী কর্তৃপক্ষ গত ৪ জুলাই পৌষ মেলা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, শীতের এই উত্সব নিয়ে পরিবেশ সংক্রান্ত নির্দেশিকা নিয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বিবাদের মাঝে বিগত ২ বছরের তিক্ত অভিজ্ঞতার কারণে।রবীন্দ্রনাথের পিতা দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৮৯৪ সালে এই মেলা শুরু করেন। ১৯৫১ থেকে মেলার আয়োজন করে আসছে।

পৌষ মেলা বন্ধ করার সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা ১৫ই আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে মেলার মাঠে দেওয়াল তুলতে বাধা দেয়। ২ দিন পরে স্থানীয় বাসিন্দারা দেওয়াল তোলার বিরুদ্ধে ভাঙচুর করে ও একটি প্রবেশদ্বার ভেঙে দেয়।