সন্ত্রাসবাদে অর্থ যোগানোর “ধূসর তালিকা”য় থাকবে পাকিস্তান

1 min read

।। সুদীপ মান্না ।।

বিশ্ব সন্ত্রাসবাদে অর্থ যোগানের নজরদারের “ধূসর তালিকা”য় থাকবে পাকিস্তান আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। শুক্রবার জানালো ওই সংস্থা। কেননা আন্তর্জাতিক তহবিলে নিরবচ্ছিন্ন অধিকার পাওয়ার জন্য শর্তাবলি পূরণে ব্যর্থ হয়েছে পাকিস্তান।

২৭টির মধ্যে ৬টি পয়েন্ট পূরণ করতে পারেনি তারা। ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স(এফএটিএফ) জানালো। ইসলামাবাদ সমস্ত শর্ত পূরণ করার পরই পাকিস্তানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠবে। যদি তা না হয়, তবে কালো তালিকাভুক্ত হবে দেশ।

ভারতের বিশেষজ্ঞদের মতে, পাকিস্তান জঙ্গি সংস্থাগুলি ও বিশ্বের মোস্ট ওয়ান্টেড মাসুদ আজাহার ও হাফিজের সঈদের মতো জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুরোপুরি ব্যর্থ।

পা্কিস্তানের ব্যর্থতা রয়েছে সন্ত্রাসবাদে অর্থ যোগানো বন্ধ করতে ও অর্থ তছরূপের মতো বিষয়ে। মনোনয়নকারী ৪টি দেশ আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানি আফগানিস্তানে পাক ভূমিকা নিয়ে সন্তুষ্ট নয়।

পাকিস্তানের ধূসর তালিকায় থেকে যাওয়ার অর্থ, তাদের পক্ষে আইএমএফ, বিশ্বব্যাঙ্ক, এডিবি ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে অর্থ সাহায্য পাওয়া দুষ্কর। অর্থ পীড়িত দেশের জন্য যা দুঃসংবাদ।

এফএটিএফ-এর ৩ দিনের ভার্চুয়াল অধিবেশনের পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তারা মুল্যায়ন প্রক্রিয়া স্থগিত রেখেছে। তাই পাকিস্তান অতিরিক্ত ৪ মাস সময় পেয়েছে শর্ত পূরণের জন্য।

আরও পড়ুন: ট্রাম্পের “নোংরা ভারত” মন্তব্যের পর টুইটারে “হাউডি মোদী!” ট্রেন্ড

কালো তালিকা এড়াতে পাকিস্তানের ৩টি দেশের সমর্থন জরুরি। তাকে সমর্থন জানিয়ে আসছে চীন, তুর্কি ও মালয়েশিয়া। বর্তমানে উত্তর কোরিয়া ও ইরান কালো তালিকায় আছে। পাকিস্তানের সাদা তালিকায় আসতে ৩৯টির মধ্যে ১২টি ভোট প্রয়োজন।

Categories