Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

পদ্মে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ সিরাজ, আশীর্বাদ শুভেন্দুর

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

রাজ্যের শাসক হিসেবে তৃণমূলের সঙ্গে সদ্ভাব আর নেই রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর। শুভেন্দু যে কি করবেন আর কি করবেন না তারা এখনও শুভেন্দুর অনুগামীদের কাছে স্পষ্ট নয়। শুভেন্দু কে দলে রাখতে তার সঙ্গে একাধিকবার বৈঠকে বসছেন সাংসদ সৌগত রায়। ইতিমধ্যেই শুভেন্দুর ঘনিষ্ঠ মেচেদায় ভারতীয় জনতা কিষাণ মোর্চা সভায় ঘাসফুল পদ্মফুলে যোগদান করেছেন সিরাজ খান। সিরাজ খানের বিজেপিতে যোগদানের পর এই তৃণমূলে শুভেন্দু অধিকারীর ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। যদিও প্রবল গুঞ্জনের মধ্যে শুভেন্দু অধিকারী ধাঁধা জিইয়ে রেখেছেন।

দল যেভাবে চলছে তাতে যে শুভেন্দু অসন্তুষ্ট সে ব্যাপারে আর কোনও রহস্য নেই। বাংলার রাজনীতির চোখ এখন শুভেন্দু অধিকারীর উপর। তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব তো বটেই অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরাও লক্ষ্য রাখছেন শুভেন্দু অধিকারীর গতি প্রকৃতির উপর। শুভেন্দু অধিকারী যে তৃণমূল ছাড়তে পারে এই জল্পনা চলছে গত কয়েকমাস ধরেই। তার গতিবিধির ওপর নজর রাখছে তৃণমূল কংগ্রেস। শুভেন্দু অধিকারী এখনো হাল ছাড়েনি। তবে তাদের সাথে তার দূরত্ব স্পষ্ট। এই পরিস্থিতিতে তার ঘনিষ্ঠ বিজেপিতে যোগ দিলেন।

শুধু এখানেই শেষ নয় সিরাজ খান জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারীর আশীর্বাদ পেয়েছেন তিনি। এই মন্তব্যে এখন জল্পনা নতুন করে উস্কে গেল। তবে এরপর শুভেন্দুর ঘনিষ্ঠরা আর কে কে গেরুয়া শিবিরের নাম লেখাবেন সেটাও এখন দেখার বিষয়। এই যোগদানের পর্বে তৃণমূল যে আবারো ধাক্কা খেলো তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। বাংলায় আর মাত্র কয়েক মাস বিধানসভা নির্বাচন হতে। এরই মাঝে শক্তি ঝালিয়ে নিচ্ছে শাসক-বিরোধী শিবির। তবে ভোটের ঠিক আগেই তৃণমূলী রাজনীতিতে বেশ কিছুটা জট পেকেছে।

আরো পড়ুন :সিঙ্গুর থেকেই তৃণমূলের পতন শুরু হবে বললেন বিজেপি নেত্রী..

এখন প্রশ্ন উঠছে শুভেন্দু অধিকারীর সিরাজ খান কে কি আশীর্বাদ দিলেন। তাহলে কি শুভেন্দু অধিকারী কে নিয়ে জল্পনার মাঝেই তার অনুগামী, নেতারা দল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যেতে চাইছে আর তাতেই সহমত দিচ্ছেন শুভেন্দু? সিরাজ খান যোগ দেওয়াতে বিজেপির যে ভালই লাভ হয়েছে সেটা বলে রাখাই ভালো। বিজেপির দাবি সিরাজ খানের সঙ্গে প্রায় ২ হাজার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। পূর্ব মেদিনীপুর কেই কি জোরদার টার্গেট করতে চাইছে বিজেপি।

একদিকে বিজেপির কর্মীরা যেমন দলীয় কর্মসূচি করছেন তেমন তৃণমূল কর্মীদের ও দলে দলে যোগদান করাচ্ছে বিজেপিতে। বাংলার গেরুয়া ঝড়ে যখন সমগ্র রাজ্যই গেরুয়াকরনের দিকে এগোচ্ছে তখন কি শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূলে অটুট থাকবে। যে তৃণমূল বাম কংগ্রেসকে ভাঙছে সেই একই কায়দায় তৃণমূলকে ভাঙছে বিজেপি। প্রতিদিনই রাজ্যের কোথাও-না-কোথাও ভাঙ্গন হচ্ছে তৃণমূলের। সর্বশেষ এটাই বলতে হয় সিরাজ খানের বিজেপিতে যোগদান শুভেন্দু অধিকারীর আশীর্বাদ এরপর শুভেন্দু অধিকারীর ও গেরুয়া শিবিরে যোগ দানের জল্পনা তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠতে শুরু করল ‌