Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাংলার মানুষের দুর্দশা একমাত্র বিজেপি ঘোচাতে পারবে, পোস্ট দিলীপের

।। সুদীপা সরকার ।।

নির্বাচনের আগেই রাজ্য সরকার গত ১০ বছরে কোন কোন কাজে পিছিয়ে রয়েছে তা তুলে ধরতে চাইছে বিজেপি নেতৃত্ব। আজ দিলীপ ঘোষ তাঁর ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করেছেন। পোস্টটিতে লেখা
নদী বাঁধ নির্মাণের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি তৃণমূল। ক্যানিং, গোসাবা, নামখানা সহ জেলার একাধিক এলাকায় পাকা নদী বাঁধ নির্মাণ হয়নি গত ১০ বছরেও চাষের জমি, ফসল, ঘরবাড়ি হারিয়ে বহু মানুষ নিঃস্ব বাংলার মানুষের দুর্দশা একমাত্র বিজেপিই ঘোচাতে পারবে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের এই পোস্টটি বহু মানুষ শেয়ার করেছেন।

তেমন পড়েছে নানান ধরনের কমেন্ট। একজন লিখেছেন, সাগর, ঘোড়ামারা, মৌসুনী, মক্কা দিয়ে এসব অঞ্চলের নদী বাঁধ ১০ বছরে মেরামত হয়নি। চাষের জমি, ঘরবাড়ি ,পানের বোরোজ প্রতিবছর নদীগর্ভে তলিয়ে যাচ্ছে। বিজেপি পারে মানুষের দুর্দশা ঘোচাতে। আমার একজন লিখেছেন, তৃণমূল খারাপ আমি ১০০ বার বলবো, কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার কোন প্রতিশ্রুতি রেখেছে? ত্রিপুরাতে বিজেপি যা যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তার কী কী পূরণ করেছে যদি একটু পরিষ্কার করে বলেন। আবার একজন লিখেছেন, শুধু দশ বছর কেন তার আগে যারা বাংলা শাসন করেছে তারাও সমানভাবে দায়ী। আবার একজন দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ করে লিখেছেন,

বছরে ২ কোটি চাকরির প্রতিশ্রুতি, সারদা নারদা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি বিজেপি, উল্টে তৃণমূলের কাটমানি খেকোদের দলে নিয়ে তাদের মাথায় করে আগলে রেখেছে বিজেপি। আসলে যাহাই ৫৬ তাহাই নবান্ন। আবার একজন লিখেছেন যার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন তদন্ত করছেন না কেনো? অন্যান্য বারের তুলনায় এবারের নির্বাচন সম্পূর্ণ আলাদা। একদিকে তৃণমূল সরকার যখন রিপোর্ট পেশ করে তারা কী কী কাজ করেছে মানুষের জন্য ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছে। তখন বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করছেন, বাংলার মানুষের জন্য গত ১০ বছরে কাজ করতে পারেনি রাজ্য সরকার। এই পরিস্থিতিতে আজ দিলীপ ঘোষ নদী বাঁধ নির্মাণের বিষয়টি তাঁর পোষ্টের মাধ্যমে তুলে ধরলেন।