২৪ ঘন্টা পরীক্ষা হওয়া নিয়ে উঠল আপত্তি !

1 min read

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।। কলকাতা ।।

করোনা আবহে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ে ক্রমাগত বিতর্ক চলছে। রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ইউজিসির নিয়ম অনুযায়ী পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে, তাও অনলাইনে। তবুও ইউজিসির পছন্দ হল না পরীক্ষা পদ্ধতি। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে পরীক্ষার জন্য বরাদ্দ করা হয়েছিল ২৪ ঘন্টা সময়, যা না পসন্দ ইউজিসি। পরিস্কার জানানো হল যে খুব বেশি হলে তিন ঘণ্টা সময় দেওয়া হবে। অগত্যা উপরমহলের নির্দেশ মেনে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা সূচীতে আনছে পরিবর্তন।

স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা নেওয়া বাধ্যতামূলক – এমনই জানানো হয়েছিল ইউজিসির তরফে। ইউজিসির নির্দেশিকায় পড়েছিল সুপ্রিম কোর্টের শীলমোহর। সেইমতো রাজ্যের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পরীক্ষা প্রস্তুতি শুরু হয়েছে জোরকদমে। করোনা এবং আম্ফানের জোড়া আক্রমনে বিধ্বস্ত রাজ্যে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলির চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা হবে না বলেই ঠিক করা হয়েছিল।

তাই গতবারের সেমেস্টারে পাওয়া নম্বর, প্রজেক্টের ভিত্তিতে চূড়ান্ত বর্ষের ফলাফল প্রকাশ করা হবে -এমনটাই জানানো হয়েছিল। কিন্তু ইউজিসির নির্দেশিকা অনুযায়ী পরীক্ষা ছাড়া স্নাতক বা স্নাতকোত্তরের সার্টিফিকেট দেওয়া হবে নাা, এর জন্য পরীক্ষা দিতেই হবে। শিক্ষা দফ্তরে দফায় দফায় বৈঠক হয় এবং অনলাইনে পরীক্ষা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি হয়, ই-মেল বা হোয়াটসঅ্যাপে পরীক্ষার্থীদের প্রশ্ন পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সেগুলির উত্তর লিখে অনলাইনে তা জমা দিতে হবে। অনলাইনে যাদের পক্ষে পরীক্ষা দেওয়া সম্ভাবনা নেই, তাদেরকে সংশ্লিষ্ট কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গিয়ে উত্তরপত্র জমা দিয়ে আসতে হবে। অক্টোবরের ১ থেকে ১৮ তারিখের মধ্যে যাবতীয় পরীক্ষা নেওয়া হবে। সমস্ত পরিকল্পনায় শীলমোহর মেরে রাজ্যের তরফে ইউজিসিকে পাঠানো হয়।

এরপরে ইউজিসির তরফে জানানো হয়, পরীক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে সামগ্রিক ভাবে কোনও সমস্যা নেই। তবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়কে আলাদাভাবে জানানো হয়েছে যে উত্তর লেখার জন্য ২৪ ঘন্টা সময় দেওয়া যাবে না। সবমিলিয়ে তিনঘণ্টা সময় দিতে হবে পরীক্ষার জন্য। লগ-ইন করে, প্রশ্নপত্র দেখার জন্য এবং উত্তর পত্র পাঠানোর জন্য কিছুটা বাড়তি সময় দেওয়া হবে। ইউজিসির নব নির্মিত নির্দেশিকা পাওয়ার পর বদলানো হয়েছে পরীক্ষার সূচি।