পিকের সংস্থার থেকে কেউ রাজনীতি শিখবেন না, তৃণমূল নেতার তোপ

1 min read

।। শর্মিলা মিত্র ।।

আবারও প্রশান্ত কিশোরকে নিয়ে বিড়ম্বনা তৈরি হল তৃণমূলের অন্দরে। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই পিকে ও তার টিমের বিরুদ্ধে তৃণমূলের অন্দরে তৈরি হচ্ছে দ্বন্দ্ব। বহি:প্রকাশ ঘটতে দেখা যাচ্ছে ক্ষোভের। কর্পোরেট সংস্থা দিয়ে রাজনৈতিক দল চলতে পারে না বলে প্রশান্ত কিশোর ও তার সংস্থা আই প্যাকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন আরও এক তৃণমূল নেতা।

মিহির গোস্বামী, জগদীশ বর্মা বসুনিয়া ও অন্যান্য আরও তৃণমূল নেতা, কর্মীদের পাশাপাশি এবার আবারও পিকে ও তার টিমের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গেল জলপাইগুড়ির তৃণমূল জেলা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক বুবাই করকে।বুবাই করের দাবি, পিকের সংস্থার কাছে তারা কেউ রাজনীতি শিখবেন না।

কোনও কর্পোরেট সংস্থা দিয়ে রাজনৈতিক দল চলতে পারে না বলার পাশাপাশি তৃণমূলে প্রশান্ত কিশোরের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। তৃণমূল নেতা বুবাই কর দলে তার অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়ে জানান, তার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার নেতা শুভেন্দু অধিকারী। অথচ, একটি বেসরকারি সংস্থার কর্মী এসে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের কাছ থেকে তাদের কাজের হিসেব চাইছেন, এতে অসম্মানিত বোধ করছেন দলের নেতা-কর্মীরা বলেও ক্ষোভ উগরে দেন জলপাইগুড়ির তৃণমূল জেলা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক বুবাই কর।

আরো পড়ুন : অভিষেকের হয়ে ব্যাটন ধরলেন কুণাল ঘোষ

পাশাপাশি, শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামী বলে পরিচিত বুবাই করের আরও দাবি করেন যে, তৃণমূল কংগ্রেসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একমাত্র বিকল্প হলেন শুভেন্দু অধিকারি। যা নিয়ে আবারও তৈরি হল জল্পনা। যদিও, বুবাই করের এই মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। জেলা তৃণমূল জানিয়েছে, এটা একেবারেই ব্যক্তিগত মতামত। জেলা তৃণমূল এই মতামতের সঙ্গে ঐক্যমত্য নয়।

তৃণমূল নেতার এই মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পরই আসরে নেমে পড়েছে বিজেপি। এই বিষয় কটাক্ষ করতেও ছাড়েনি বিজেপি। কাটমানির সরকার চলছে বাংলায়। সেখানে সৎ লোকেরা বেমানান। তাই তৃণমূলে এখন গোষ্ঠী কোন্দল চলছে বলে কটাক্ষ করার পাশাপাশি প্রশান্ত কিশোরের আই প্যাককে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের সংস্থা বলেও বর্ণনা করতে ছাড়েনি বিজেপি।

Categories