সুখবর! ভারতে আসতে চলেছে কোভিড-১৯এর নতুন চিকিৎসা

1 min read

।। সুদীপ মান্না ।।

সেরাম ইন্সটিটিউট অফ ইন্ডিয়া বৃহস্পতিবার জানালো, জার্মান ওষুধ সংস্থা মার্ক ও নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক অলাভজনক স্বাস্থ্য গবেষণা সংস্থা আইএভিআই-এর সঙ্গে তারা চুক্তি করেছে করোনাভাইরাস সংক্রমণের চিকিৎসার বিকাশের জন্য।

তিনটি সংস্থা জানিয়েছে, তারা সা্র্স-কোভ-২ কে নিষ্ক্রিয় করতে মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি তৈরি করছে। যাতে নোভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর মানুষ সুস্থ থাকে। যা টিকা তৈরির গবেষণার থেকে আলাদা।

তারা জানিয়েছে, প্রত্যেকের দক্ষতা, ভৌগোলিক উপস্থিতি ও পরিকাঠামোকে ব্যবহার করা হবে চিকিৎসাটি বিকশিত করার জন্য। নিশ্চিত করা হবে যাতে নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলিতে এই চিকিৎসা পৌঁছয়, যাদের এই সুযোগ নেই।

সেরাম ইন্সটিটিউটের ৫০এরও বেশী বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে সহজসাধ্য ওযুধ তৈরির এবং এরা বিশ্বের বৃহত্তম টিকা প্রস্তুতকারক। তাই তারা বিশ্বব্যাপী উৎপাদনের নেতৃত্ব দেবে ও ভারত সহ নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলিতে বাণিজ্যকরণ করবে।

আরও পড়ুন: দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও বিশ্ব ইস্যুতে কথা হবে ইন্দো-মার্কিন বৈঠকে

এই চিকিৎসা এমন সময়ে ভারতে আসতে চলেছে, যখন মাঝ-নভেম্বরে শেষ হওয়া পর্যন্ত উৎসবের দিনগুলিতে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বেড়ে য়েতে পারে। এখন দেশে মোট সংক্রমণ ৭৭ লাখ ছাড়িয়ে গেছে, যা আমেরিকার পরেই রয়েছে।

রিপোর্টে জানা গেছে টিকার জন্য সরকার ৫০০০০ কোটি টাকা তৈরি রেখেছে। কেন্দ্র সরকার হিসেব করেছে প্রতি ব্যক্তির জন্য শটের খরচ পড়বে সব মিলিয়ে ৫০০ টাকার মতো।

Categories