Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মোদিজি ‘পপুলার’ হবে তাই চালু হয়নি কিষাণ সম্মান নিধি, তোপ মুকুল রায়ের

1 min read

।। শর্মিলা মিত্র ।।

সোমবারই রাজ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের ‘কিষাণ সম্মান নিধি’ কার্যকর হওয়ার কথা জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। আর এরপরই কিষান সম্মান নিধি রাজ্যে চালু না হওয়ার ক্ষেত্রে যেরকম সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির তেমনই কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রকল্প রাজ্যে চালুর কথা জানানোর পরও তার সমালোচনা করতে ছাড়ছেন না বিজেপি নেতা নেত্রীরা। লকেট চট্টোপাধ্যায়ের (Locket Chatterjee) হোক বা মুকুল রায় (Mukul Ray) বাদ যাচ্ছেন না কেউই। ‘শুধুমাত্র কিষাণ সম্মান নিধি যদি কৃষকদের হাতে পৌঁছাঁয় তাহলে মোদিজি popular হবে এই কারনে কিষাণ সম্মান নিধির টাকাটা আজ অবধি পৌঁছায় নি’। ‘এক্ষেত্রে আমরা খুব পরিস্কার যে কৃষকদের বন্চিত করা শুধু রাজনৈতিক স্বার্থে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) পশ্চিমবঙ্গে করেছেন’।

বলেও মন্তব্য করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায়(Mukul Ray)। পাশাপাশি লক্ষ্মীরতন শুক্লার পদত্যাগ নিয়ে সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করেন, আজ মন্ত্রীত্ব ছেড়ে দিয়ে লক্ষ্মীরতন শুক্লা বলেন, রাজনীতি ছেড়ে দেব তাই মন্ত্রীত্ব ছাড়লাম এই বিষয়ে মুকুল রায় জানান ‘মন্ত্রীত্ব ছেড়ে দিয়েছে শুনলাম, রাজনীতি ছেড়ে দেবে এরকম শোনা নেই। লক্ষ্মী একজন বড় ক্রিকেটার, ওর ভালো হোক এটাই চাইব’ বলে মন্তব্য করেন মুকুল রায়। কিষাণ সম্মান নিধি রাজ্যে চালু করার পাশাপাশি বিধানসভায় খুব শীঘ্রই কৃষি আইনের বিরোধী বিল আনার কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

আরো পড়ুন : লক্ষ্মীরতন শুক্লার ইস্তফা নিয়ে রাজনৈতিক মহলের কার কী প্রতিক্রিয়া জানুন

এই বিষয়ে বিজেপি ছাড়া কংগ্রেস ও সিপিএমকে আহ্বান জানিয়েছেন এই বিষয়ে মুকুল রায় বলেন, ‘কেন্দ্রীয় কৃষি বিল একটি All India Bill, একইভাবে সব রাজ্যে কার্যকরী’ বলেও মন্তব্য করেন মুকুল রায়। পাশাপাশি রাজ্য সরকারকে তার কটাক্ষ ‘অতএব, আমি একটা বিল আনলাম আর পাশ করলাম তাহলেই তো তার মান্যতা হয়না। কেরল সরকারের মত প্রস্তাব আনতে পারে কিন্তু প্রস্তাব আনা আর বিল পাস করানো এক কথা নয়’ বলে মন্তব্য করেন মুকুল রায়। পাশাপাশি সোমবারের রোড শো তে শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের না আসাতে দলের অস্বস্তির বিষয় তার মন্তব্য ‘না না আমাদের কাছে কোন অস্বস্তি নেই,’ পাশাপাশি ‘কেন আসেনি এই বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছেন’ বলেও জানান বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি মুকুল রায় (Mukul Ray)।