অষ্টমীতে পুজোর আসনে বসতেন মিরাটির পল্টু

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

প্রয়াত হয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়।দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে সামলেছেন বহু গুরু দায়িত্ব ।কিন্তু তাঁর মাঝেও প্রত্যেক বছর পুজোতে জন্মভূমি মিরাটির বাড়িতে উপস্থিত হতেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। প্রতিবছর তিনি নিজে পুজোর আসনে বসেন। দেবী দুর্গাবন্দনায় মহাষ্টমীর পুজোয় নিজেই করতেন চণ্ডীপাঠ।বাড়ির পুজোয় একবারে ‘ঘরের ছেলে’ হয়ে উঠেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি।

ষষ্ঠীর বিকেলেই তিনি পৌঁছে যেতেন তাঁর মিরাটির বাড়িতে।অষ্টমীতে পুজোর আসনে বসতেন নিজে। শুদ্ধচিত্তে করতেন চণ্ডীপাঠ।প্রতিবছরের এই দিনটা পুরোপুরি অন্য মেজাজে দেখা যেত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে।বিদেশমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, এমনকী রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেশের সাংবিধানিক প্রধানে পদে আসীন হওয়ার পরও তিনি দুর্গাপুজোয় সক্রিয় অংশ নিয়েছেন বরাবর।

পরণে সাদা ধুতি, গায়ে উত্তরীয় চাপিয়ে একবারে পুরহিতের সাজে সেজে উঠতেন ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি।নিজের অজান্তেই পুজোর দিনগুলোতে ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি গ্রামের পল্টু হয়ে উঠতেন।১৮৯৬ সালে শুরু হয়েছিল মিরাটির মুখোপাধ্যায় বাড়ির দুর্গাপুজো। প্রণববাবুর দাদু জঙ্গলেশ্বর মুখোপাধ্যায় স্বপ্নাদেশ পেয়ে শুরু করেন দুর্গা আরাধনা।সেই থেকেই এই পুজো চলে আসছে।

সমস্ত ব্যস্ততা সরিয়ে রেখে প্রণববাবু বরাবর বাড়ির পুজোয় উপস্থিত থাকতেন। তিনবার প্রণববাবু অংশ নিতে পারেননি। একবার ভারতের হয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘে প্রতিনিধিত্ব করতে গিয়েছিলেন, সেটা ছিল ১৯৯৫ সাল।আর দু-বার নির্বাচনের কাজে ব্যস্ত ছিলেন উত্তরপ্রদেশ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে। বাকি সমস্ত বছরেই তিনি উপস্থিতি থাকতেন বাড়ির পুজোয়।অনান্য বছরের মতো এবছরও পুজো হবে , শুধু উপস্থিত থাকবেন না গ্রামের পল্টু !