Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে তুলোধনা করলেন মমতা

1 min read

।। শর্মিলা মিত্র ।।

বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন যত এগোচ্ছে, ততই কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে সরব হচ্ছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। শাসক দলের নেতা-নেত্রীরা অভিযোগ করছেন, বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। একই অভিযোগ ইতিমধ্যেই শোনা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে।

আজ এবার আবারও আলিপুরদুয়ারে কালচিনির জনসভা থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচন কমিশনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ প্রশ্ন করেন ‘আপনারা কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ওঠা নৃশংসতার অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন ?’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও অভিযোগ করেন ‘সকাল থেকে আমাদের লোককে পেটানো হচ্ছে। খানাকুলের প্রার্থীকে মারা হয়েছে। আরামবাগের প্রার্থী সুজাতা মণ্ডলকে মারা হয়েছে। তাঁর নিরাপত্তা রক্ষীকে মারা হয়েছে’ বলেও তৃতীয় দফা ভোটের কালচিনির জনসভা থেকে অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি তাঁর অভিযোগ, ‘মহিলাদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। কী বলছে, বলছে বিজেপিকে ভোট দিন। না হলে আমরা দেখে নেব।’ পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্য, ‘তোমরা কী দেখে নেবে ? একদিনের জন্য এসেছ। একদিনের অতিথি। কাল তোমরা চলে যাবে। কাদের দেখে নেবে ?’

পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারি ‘যারা এই কাজ করছে সকলের বিরুদ্ধে এফআইআর করতে বলছি।’ পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘আমার মা বোনেরা যদি দেখেন আপনাকে ভোট দিতে বাধা দিচ্ছে ভোট কেন্দ্রে আসতে বাধা দিচ্ছে আপনাকে অত্যাচার করছে আপনার ঘরের ছেলে মেয়েদের অত্যাচার করছে নির্দিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে ওইখানে যিনি কম্যান্ডেন্ট থাকবেন তার বিরুদ্ধে এফআইআর করবেন এবং নির্বাচন কমিশনকে জানাবেন’ বলেও জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পাশাপাশি তাঁর মন্তব্য, ‘আমি প্রত্যেকটা এফআইআর-এর দেখব কে কে করছে কোন কম্যান্ডেন্ট করছে। কার নির্দেশে করছে।’ ‘তোমাদের শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। যদি এতই ভালো হয় নির্বাচন কমিশনের সেন্ট্রাল ফোর্স, তাহলে কেন ইতিমধ্যেই তিনটে ফেজ নির্বাচন চলাকালীন কেন ৭, ৮টা খুন হয়ে গেল ?’ প্রশ্ন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

পাশাপাশি সেন্ট্রাল ফোর্সের বিরুদ্ধে সব মা ভাই বোনেদের একাট্টা হওয়ার কথাও বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই আজ সকালে একটি ট্যুইট করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাতে লেখেন, ‘কেন্দ্রীয় বাহিনীর অপব্যবহার চলছেই। উর্দি পরা বাহিনীকে বিভিন্ন জায়গায় দেখা যাচ্ছে প্রকাশ্যে তৃণমূল প্রার্থীদের ভয় দেখতে কিংবা মানুষকে একটি দলকে ভোট দেওয়ার জন্য প্রভাবিত করতে। আমরা বারবার এই সব ঘটনা তুলে ধরলেও নির্বাচন কমিশন নীরব দর্শক’।

প্রসঙ্গত, এর আগে দ্বিতীয় দফা ভোটেও নন্দীগ্রামে ভোটের দিনেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিল তৃণমূল। ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নন্দীগ্রামের ভোট নিয়ে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চিঠিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। যদিও তাঁর আনা অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। আর এবার ট্যুইটের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে কালচিনির জনসভা থেকে সরব হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।