Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মমতাই অনুপ্রেরণা ,তৃণমূলে অভিনেত্রী কৌশানি ও পিয়া

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

ভোটের দিন এগিয়ে আসতেই দলবদল যেন বেড়েই চলেছে।এবং বিভিন্ন দলে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের যোগদান পর্ব চলছে। ঠিক এই পরিস্থিতিতে আজ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন সুখেন দাসের কন্যা প্রযোজক পিয়া সেনগুপ্ত (Piya Sengupta )এবং অভিনেত্রী কৌশানি মুখোপাধ্যায়( koushani Mukherjee )। এবারের নির্বাচনে তৃণমূল বিজেপি একে অপরকে ছেড়ে কথা বলছে না। তেমন ই কার পাল্লা ভারী সেই প্রতিযোগিতাও চলছে। আজ তৃণমূল ভবনে অভিনেত্রী কৌশানি মুখোপাধ্যায় ও পিয়া সেনগুপ্তের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দিলেন ব্রাত্য বসু( bratya Basu ) এবং কুণাল ঘোষ( Kunal Ghosh )। দু’দিন আগেই তৃণমূলে যোগদান করেছিলেন সৌরভ দাস। আজকের যোগদান পর্বের আগে ব্রাত্য বসু বলেন ২০১৪ সালের পর থেকে বাকস্বাধীনতা ভূলুণ্ঠিত অভিনেতা-অভিনেত্রীদের।

অনুরাগ কাশ্যপ এর মত বড় মাপের পরিচালককে বিজেপি সরকার হুমকি দেয় নানান ভাবে তাঁর মেয়েকে ট্রোল করেছে,নাসিরুদ্দিন শাহ কে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলা হচ্ছে, আয়ুষ্মান খুরানা কেউ ভয় দেখানো হয়েছে দলিতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। বিজেপি আইটি সেল করে পিছনে লাগছে।অভিনেতা-অভিনেত্রীদের দমবন্ধ করা পরিস্থিতি তৈরি করেছে। ব্রাত্য বসু বলেন গণতন্ত্রের সবাই এক দলের পক্ষে নাও হতে পারেন। এই ইন্ড্রাস্ট্রি থেকে অনেকেই বিজেপিতে যোগদান করেছেন।কিন্তু আমরা তাঁদের বিরুদ্ধে পুলিশ দিয়ে হুমকি দেওয়া ট্রোল করা এগুলো করি না কারণ এগুলি বাংলার সংস্কৃতি নয়। তিনি বলেন বিজেপি যদি ক্ষমতায় আসে তাহলে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বাক স্বাধীনতা টুকু থাকবেনা। অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মুখ বন্ধ করে দেবে।

পাশাপাশি কুনাল ঘোষ বলেন তৃণমূল কংগ্রেস গঠনের সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) স্লোগান দেয় মানুষের মহাজোট। তৃণমূল কংগ্রেস সমাজের সমস্ত স্তরের মানুষদেরকে রিপ্রেজেন্ট করে। তৃণমূল কংগ্রেসের সমাজের বিভিন্ন শাখার মানুষজন কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন।তৃণমূলে যোগ দিয়ে পিয়া দাস বলেন মমতা ব্যানার্জির সৈনিক বা কর্মী হিসেবে তিনি মমতা ব্যানার্জির পাশে থাকবেন। আমার বাবা সুখেন দাস হয়তো নেই কিন্তু অসম্ভব স্নেহ করতেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে। আমি দেখেছি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন প্রত্যেক মানুষের পাশে থাকা। আমি অঙ্গীকার করছি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কর্মীদের সাথে চলবো এই দলের পাশে থাকবো। তৃতীয়বার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে মুখ্যমন্ত্রী দেখার অঙ্গীকার রইল। তার জন্য শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে আমি লড়াই করব। নবান্নের শ্রেষ্ঠ আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবার বসবেন।

আরো পড়ুন : ভিক্টরিয়া মেমোরিয়ালে মমতা “জয় বাংলা” স্লোগান দিয়েই কি ভুল করলেন?

পাশাপাশি গতকাল ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠানের মুখ্যমন্ত্রী কে দেখে জয় শ্রীরাম স্লোগান তোলার প্রসঙ্গে তিনি বলেন গতকালের ঘটনাযর প্রতিবাদ জানাচ্ছি ধিক্কার জানাচ্ছি। আবার অন্যদিকে কৌশানি তৃণমূলে যোগদান এর পর বলেন টালিগঞ্জের অনেক অনুরাগী রয়েছেন যারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুরাগী আমার আজকের যোগদানের পর তাদের হয়তো আরও অনুপ্রাণিত করবে। আমি বারবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে আদর্শ মনে করেছি। রাজ্যে কোন সরকার আসবে তা নিয়ে বিতর্ক চলছে। কিন্তু তৃণমূলে যোগ দেওয়ার এটাই সঠিক সময় ভেবে আমি তৃণমূলে যোগ দিলাম। আমি দিদির দেখানোর পথেই হাঁটতে চাই। পাশাপাশি কৌশানি নিজের সিনেমার কথা উল্লেখ করে বলেন আমার প্রথম সিনেমার নাম ছিল পারবনা আমি ছারতে তোকে সেই সূত্রে আমি তখনই বলে দিয়েছিলাম দিদিকে আমি পারবো না ছাড়তে।