পুরনো শাড়ি দিয়ে বানান নতুন নতুন পোশাক

।। প্রথম কলকাতা ।।

করোণা পরিস্থিতিতে আলমারিতে বন্দি আপনার বেশ কয়েকটি ভালো শাড়ি। অনেকদিন ধরেই সাধের ডিজাইনার শাড়ি টি পড়ে রয়েছে আলমারিতে। একাধিকবার সোশ্যাল মিডিয়ায় আলমারিতে থাকা বেশ কিছু শাড়ি গুলি পড়ে ছবি পোস্ট করা হয়েছে ‌। কিন্তু পুরনো হলেও এত দামি এত শখের শাড়ি গুলো ফেলে দেওয়া যায় না। তাহলে কি উপায়। আছে উপায়। শাড়ি দিয়ে বানিয়ে ফেলুন নতুন নতুন পোশাক।

পুরনো শাড়ি হয়ে উঠুক লং ড্রেস :পুরনো শাড়ি দিয়ে সহজেই তৈরী করা যায় লং ড্রেস। সুতির বা লিলেন শাড়ি হলে তা দিয়ে সহজেই গোড়ালি পর্যন্ত ঢাকা পোশাক তৈরি করা যেতে পারে। তাঁতের শাড়িতে কাটাছেঁড়া কম করতে হয়। সময় কম লাগে।

পুরনো শাড়ি হয়ে উঠুক লেহেঙ্গা : ডিজাইনার লেহেঙ্গা পিছনে অহেতুক টাকা খরচ না করে ডিজাইনার পুরনো শাড়ি থেকে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলতে পারেন লেহেঙ্গা। এজন্য শাড়ির আঁচল দিয়ে শুধু লেহেঙ্গার ওড়না বানিয়ে নিন।শাড়ির পাড় অথবা সাদিক কোমরের কাছে কুচির অংশ দিয়ে লেহেঙ্গা স্কার্ট বানিয়ে নিতে পারেন।এজন্য প্রথমে শাড়ির আঁচলের অংশটি দর্জিকে দিয়ে কাটিয়ে নিয়ে লেহেঙ্গার ওড়না বানিয়ে নিন। এবার কনট্রাস্ট ফেব্রিকের লেহেঙ্গা স্কার্ট এর সঙ্গে কম্বিনেশন করে পড়ুন ওড়না। অথবা শাড়ির কোল এবং কুচির অংশ কেটে বানিয়ে নিতে পারেন লেহেঙ্গা স্কার্টও।

শাড়ির আঁচল হতে পারে ওড়না বা দোপাট্টা :কিছু কিছু শাড়ির আঁচলের ডিজাইন এতটাই সুন্দর হয় যে সত্যি ফেলে দিতে ইচ্ছা করেনা।আর কোন চিন্তা নেই শাড়ির আঁচলের অংশ কেটে নিয়ে আপনি বানিয়ে নিতে পারেন সুন্দর দোপাট্টা। সেইসঙ্গে ধারের দিকে কুচি দিয়ে বা নেশা লাগিয়ে নিলেই এর চেহারা বদলে যাবে।আজকাল শুধু সালোয়ার নয় স্কার্টের সঙ্গে দোপাট্টা নেওয়াটা ফ্যাশন।

তাহলে আর দেরি না করে ঘরের পুরনো শাড়ি দিয়ে ট্রাই করুন এই ফিউশন লুক গুলি।