Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

কৃষ্ণ কৃষ্ণ হরে হরে…. তারপর কী বললেন দেবাংশু?

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলার বিভিন্ন জেলায় জেলায় এলাকায় এলাকায় চলছে রাজনৈতিক দলগুলির সভা পাল্টা সভা মিছিল। গতকালই মানস ভুঁইয়ার গড়ে সভা করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী।
আজ পাল্টা সভা ডেকেছে তৃণমূল। আবার অন্যদিকে আজ নন্দীগ্রামে সভা করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।
সভায় ছিল উপচে পড়া ভিড়। ওই সভায় ছিলেন নন্দীগ্রামের শহীদদের পরিবার ঐ সভা থেকে কৈলাস বিজয়বর্গীয় মুকুল রায় , দিলীপ ঘোষ , শুভেন্দু অধিকারী (Subhendu Adhikari)শাসক দলকে একহাত নেন। আজ অধীর রঞ্জন চৌধুরীর নেতৃত্বেও কলকাতায় কংগ্রেসের একটি মিছিল বের হয়। আবার যখন বিজেপি-কংগ্রেস জোরকদমে প্রচার চালাচ্ছে তখন অন্যদিকে আজ দেবাংশু ভট্টাচার্য কোচবিহারের সভা করলেন।


সভা থেকে বিজেপিকে নিশানায় নিয়ে একের পর এক বোমা ফাটালেন। দেবাংশু সভা মঞ্চ থেকে দাবি রাখেন মে মাসে ২১ সালে দিদি তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হবেন। বিজেপি কে নিশানা নিয়ে বলেন তোমরা চুনোপুটি পায়ে পিষে যাবে বেশি সাহস বাংলার মাটি থেকে দেখাতে এসো না। ফ্লেক্স ছিড়ে তৃণমূলকে আটকানো যাবেনা। মমতা ব্যানার্জির মাথায় রডের বাড়ি মেরে কোমায় পাঠানোর চেষ্টা চালিয়েও তাঁকে নবান্নয় পৌঁছনো থেকে আটকানো যায় নি। লোকসভা ভোটের পর নরেন্দ্র মোদী একবারের জন্যও উত্তরবঙ্গের মাটিতে পা রাখেন নি।উত্তরবঙ্গে তৃণমূল গত লোকসভা নির্বাচনে ভোট পায়নি তা সত্বেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ৫ বার ঘুরে গিয়েছেন। বিজেপি এবং তৃণমূলের মধ্যে এটাই পার্থক্য।

আরো পড়ুন : হঠাৎই অমিতের সঙ্গে বৈঠক করতে দিল্লি যাচ্ছেন রাজ্যপাল, কিসের ইঙ্গিত?

পাশাপাশি আজ আবার বিজেপিকে নিশানায় নিয়ে দেবাংশু বলেন তৃণমূলের মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন তা সকলের জানা কিন্তু বিজেপি জিতলে মুখ্যমন্ত্রী কে হবে তা কেউ জানেন না। বিজেপির এখন তৃণমূল কে হারানোর জন্য তৃণমূলের শুভেন্দু সব্যসাচী শোভন চট্টোপাধ্যায়দের লাগছে। তৃণমূলকে হারানোর জন্য তৃণমূলের নেতা দরকার পড়ছে বিজেপির এমনটাই দাবি তোলেন দেবাংশু। পাশাপাশি ২০১৯ এর লোকসভা ভোটে তৃণমূল কংগ্রেস কেন হেরে গিয়েছিল সেই ব্যাখ্যাও সভা মঞ্চ থেকে তিনি করেন। তাঁর দাবি তৃণমূল কে হারানোর জন্য সিপিএম বলে দলটা নিজেদেরকে লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির কাছে বিক্রি করে দিয়েছিল। তবে বিধানসভা নির্বাচনে তা হচ্ছে না। আবার বেশ কয়েক দিন ধরেই বিজেপি স্লোগান তুলেছে কৃষ্ণ কৃষ্ণ হরে হরে বিজেপি ঘরে ঘরে।

এই স্লোগান বাজারে বেশ হিট হয়েছে। তার পাল্টাও আজ দেবাংশু দিয়ে ফেললেন। বিজেপির স্লোগান কে কটাক্ষ করে দেবাংশু বলেন কৃষ্ণ কৃষ্ণ হরে হরে তৃণমূলের সব পঁচা মাল বিজেপির ঘরে ঘরে। মমতা ব্যানার্জি যে সমস্ত পঁচা জিনিস ফেলে দিচ্ছে অমিত শাহ বাটি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকছেন। বিজেপির মধ্যে আদি তৎকাল নব্য দ্বন্দ্ব চলছে। বাবুল দিলীপ রোজ ঝগড়া করছেন। বিজেপি বাংলার সম্পদ লুট করার চেষ্টা চালাচ্ছে। বাঙালি জাতিকে ঘেন্না করে বিজেপি। দলীয় কর্মী সমর্থকদের উদ্দেশে দেবাংশু বলেন অনেক হয়েছে আর নয় একুশে আবার ঘরে ঘরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে আনার জন্যে সঙ্গবদ্ধ হয়ে লড়তে হবে। কাউকে ভয় পেলে চলবে না। নির্বাচনের ফলাফলের পর বিজেপির গুন্ডাদের দাঁত নখ কিভাবে ভাঙতে হয় তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা কর্মীরা তা ভালোভাবেই জানেন। আজ কোচবিহার থেকে এমনই হুঁশিয়ারি দেন দেবাংশু ভট্টাচার্য ।