Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

হিসেব করে রাখুন, আমি ছাড়ার লোক নই, হুঙ্কার শুভেন্দুর

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

গত ৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর (Subhendu Adhikari) সহায়তা কেন্দ্র অফিসে হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।বিজেপির অভিযোগ ছিল অফিস কে লক্ষ্য করে প্রচুর ইট ছোড়া হয় জিনিষপত্র ভাঙচুর করা হয় এবং প্রচুর বাইক পুড়িয়ে দেওয়া হয়। আজ তৃণমূলের হামলার প্রতিবাদে পথে নামেন শুভেন্দু অধিকারী। মিছিল শেষে নন্দীগ্রাম একটি সভা করেন শুভেন্দু অধিকারী। সেই সভা থেকে তৃণমূলকে একহাত নেন তিনি। তিনি যে লড়াকু নেতা তা তিনি মনে করিয়ে দেন। তিনি বলেন মৃত্যু এক বার হবে বারবার হবে না। আমি কোন কিছুতে ভয় পাইনা। কিন্তু আমার কর্মচারীদের নিরাপত্তার জন্য আমি আপাতত অফিসটা বন্ধ রাখছি। নন্দীগ্রামের লোকেরা ভুল বুঝবেন না। যারা পাঁচটা পয়সা দেয় না তারা পাঁচ তলা ছ তলা বাড়ি করেছেন।

গুষ্টিসুদ্ধ লোক চাকরি নিয়েছে। আমার সহযোগিতা ও ছিল তার জন্য আমি ক্ষমা চাইছি। নির্বাচন বিধি চালু করতে দিন।কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনী ও ইলেকশন কমিশনের রোল টা দেখবেন এরা কোথায় যায়।আজ নন্দীগ্রামের সভা থেকে এমনই কড়া আক্রমণ করলেন শুভেন্দু অধিকারী শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি তিনি বলেন আমি কখনও বলিনি নন্দীগ্রাম আন্দোলন আমার একার আন্দোলন আমি বলেছি নন্দীগ্রামের মানুষের আন্দোলন। নন্দীগ্রামের শহীদ বেদীতে তৃণমূল কংগ্রেস যে মাল্যদান করেছে তাও শুভেন্দু অধিকারীর (Subhendu Adhikari) তৈরি করে দেওয়া।নন্দীগ্রামের মানুষের উদ্দেশ্যে শুভেন্দু বলেন ভারতীয় জনতা পার্টির অফিসের সাথে যোগাযোগ রাখবেন। ভারতীয় জনতা পার্টি সকলকে সাহায্য করে। বাংলায় বিজেপি সরকার হবে নিশ্চিন্তে থাকুন। পুরুলিয়া বাঁকুড়া তৃণমূল খাতা খুলতে পারবে না।

আরো পড়ুন : যে ডালে বসছেন সেই ডাল কাটছেন, কটাক্ষ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের

আমি রাস্তা দিয়ে যাচ্ছি অন্ধকারে জঙ্গলের মধ্যে দিয়ে জয় শ্রীরাম বলছে।লোকজন প্রস্তুত সেন্ট্রাল ফোর্স দাঁড় করিয়ে দেবেন আমরা বোতামটা টিপবো সেই অপেক্ষায় আছে এমনটাই দাবি শুভেন্দুর। পাশাপাশি তিনি কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন সিসিটিভি ফুটেজে যাদের দেখেছি আমার অফিস থেকে তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে। তিন দিন সময় দিলাম পুলিশকে। পুলিশের বড় অফিসাররা বলছেন স্যার খুব চাপে আছি। তবে আমি ছাড়ার লোক নই এই লড়াইয়ে আমরা জিতব। আমার নজরে সব আছে।তিন দিনের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে হবে পুলিশকে না হলে আদালতে যাবেন বলে কড়া হুঁশিয়ারি দেন শুভেন্দু। পাশাপাশি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে ফের ভাইপো বলে কটাক্ষ করেন আজ শুভেন্দু।

তিনি বলেন ভাইপো এখানে পুলিশের লোকদের পাঠাচ্ছে। আজকে সকাল থেকে কয়লা গরু পাচারকার কান্ডে ১২ জায়গায় রেট চলছে। এবার ভাইপো নিজে কোথায় যাবে তা ঠিক নেই। এনামুল তৃণমূল। লালা বিনয় মিশ্ররা ছুটে বেড়াচ্ছেন। গণেশ বাগড়িয়ার পর আর একটা চৌকাট পেরোলেই তোলাবাজ ভাইপোর কাছে পৌঁছে যাবে। শুভেন্দু অধিকারী যবে থেকে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন তবে থেকেই একটাই স্লোগান তুলে ধরছেন তোলাবাজ ভাইপো হাটাও। কখনও গরু পাচার কান্ডে কখনও পায়লা পাচার কান্ডে কখনও আবার টেট দুর্নীতি নিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে আঙুল তুলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। আর আজ ফের অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে ভাইপো বলে কটাক্ষ করলেন শুভেন্দু অধিকারী। মোদীজি কে রাজ্যটা না দিতে পারলে কোনমতেই রাজ্যটাকে আর বাঁচানো যাবে না বারবার বলে চলেছেন তিনি। আজও তিনি নন্দীগ্রামের সভা থেকে নন্দীগ্রামের মানুষের উদ্দেশ্যে এই বার্তাই রাখলেন।