Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

উলুবেড়িয়ার ঘটনায় ভিডিও বার্তায় তদন্তের আবেদন জয়প্রকাশ মজুমদারের

।। শর্মিলা মিত্র ।।

রাজ্যে তৃতীয় দফার ভোটের কিছু মূহুর্ত আগেই এক তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে ইভিএম ও ভিভিপ্যাট পাওয়া যাওয়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় হাওড়া জেলার উলুবেড়িয়া উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের তুলসিবেড়িয়া গ্রামে। এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পরই বেশ কিছুক্ষণ ওই তৃণমূল নেতার বাড়ি ঘিরে রাখেন উত্তেজিত গ্রামবাসী।

জানা যায়, সোমবার মাঝরাতে গাঁতাইত পাড়ায় স্থানীয় ওই তৃণমূল নেতা গৌতম ঘোষের বাড়িতে ইভিএম ও ভিভিপ্যাটের সেট পৌঁছে দেন এক সেক্টর অফিসার। ভোটের দিন বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে জানা যায় ওই অভিযুক্ত সেক্টর অফিসারকে সাসপেন্ড করেছে নির্বাচন কমিশন।

আরও জানা যায় যে, ৪টি ইভিএম এবং ৪টি ভিভিপ্যাট পাওয়া গিয়েছে ওই তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে। যদিও ওই ইভিএম এবং ভিভিপ্যাটগুলি আর ভোটের কাজে ব্যবহার করা হবে না বলে নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়।

এবার এই বিষয় নিজের মতামত ব্যক্ত করলেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার। একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি তাঁর মতামত ব্যক্ত করেন।
ওই ভিডিও বার্তায় পুরো ঘটনাটি তুলে ধরার পাশাপাশি জয়প্রকাশ মজুমদার জানান, ‘বিজেপি খবর পেয়ে সেই তথ্য দেওয়া হয় নির্বাচন কমিশনকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই ঘটনার মাধ্যমে পরিস্কার হয়ে যায়, যে তৃণমূল কংগ্রেস এই নির্বাচন নিয়ে কতখানি মরিয়া হয়ে উঠেছে এবং তারা ভোট লুঠের জন্য এই ইভিএম মেশিন বা ভিভিপ্যাট পর্যন্ত তাদের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ছাপ্পা ভোটের এবং ভোট লুঠের বন্দোবস্ত করতে চাইছে’।

বলে অভিযোগ করার পাশাপাশি জয়প্রকাশ মজুমদার আরও বলেন, ‘আমরা এর ঘোরতর নিন্দা করছি। এবং সার্বিক তদন্ত চাইছি যে তৃণমূল কংগ্রেস আরও কত জায়গায় এইভাবে ইভিএম এবং ভিভিপ্যাট নিয়ে নিজেদের ছাপ্পা ভোটের বন্দোবস্ত করেছে, সেটা যেন সামনে আনা হয়।’ আবেদন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদারের।