শক্তি ক্ষেত্রে ভারতের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল, বললেন মোদী

1 min read

।। সুদীপ মান্না ।।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বললেন, ভারত পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির লক্ষ্যমাত্রার পথেই আছে। ২০২২এর মধ্যে বৈদ্যুতিক গ্রিডে ১৭৫ গিগাওয়াট পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি যুক্ত হবে। ভারতও জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবে। পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির উৎসগুলিকে বাড়াতে সবচেয় ক্রিয় দেশগুলির মধ্যে ভারত অন্যতম।

ভারত এনার্জি ফোরামে মোদী বলেন, “সিওপি২১ দায়বদ্ধতা পূরণ করতে ২০২২এর মধ্যে পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি থেকে ১৭৫ গিগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন হবে। আত্মনির্ভর ভারত বিশ্ব অর্থনীতির বল গুণক হয়ে উঠবে। শক্তির নিরাপত্তা আমাদের প্রয়াসের কেন্দ্রে রয়েছে। একটি ছোট কার্বন পদচিহ্ন সহ,  আমাদের শক্তি ক্ষেত্র বৃদ্ধি-কেন্দ্রিক, শিল্প-বান্ধব এবং পরিবেশ সচেতন হবে।“

শক্তি সংরক্ষণে দেশের প্রয়াস নিয়ে মোদী বলেন, গত ৬ বছরে ১১ মিলিয়নেরও বেশি স্মার্ট এলইডি আলো রাস্তায় লাগানো হয়েছে। এতে প্রতি বছরে ৬০ বিলিয়ন একক শক্তি বাঁচছে। গ্রিন হাউস গ্যাস নির্গমণ কমছে প্রতি বছর ৪.৫ কোটি টন কার্বন ডাই অক্সাইড।

বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগকারীদের ক্ষেত্রে তার সরকারের সাম্প্রতিক সংস্কারের বিষয়টি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন যে, ভারত বিশ্বব্যাপী জ্বালানী চাহিদা বাড়িয়ে তুলবে। করোনভাইরাস মহামারীতে বিশ্বব্যাপী শক্তির চাহিদা এক তৃতীয়াংশ হ্রাসের ফলে তা বিনিয়োগের সিদ্ধান্তে প্রভাব ফেলেছে এবং আগামী কয়েক বছরে চাহিদা সংকোচনের পূর্বাভাস দিয়েছে। তবে দীর্ঘমেয়াদে ভারত দ্বিগুণ শক্তি ব্যবহারের সম্ভাবনা দেখছে।

আরও পড়ুন: “মেহবুবা মুফতির মন্তব্য দেশপ্রেমে আঘাত”: দল ছাড়লেন ৩ নেতা

চলতি ২৫০ মিলিয়ন টন থেকে ২০২৫ সালের মধ্যে তেল পরিশোধন ক্ষমতা ৪৫০ মিলিয়ন টনে উন্নীত করার কথা, প্রধানমন্ত্রী তার ভার্চুয়াল সম্বোধনে বলেন। মোদী বলেন, ভারতের শক্তির ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল এবং সুরক্ষিত।

Categories