তথাগত রায় বিজেপিতে এলে টক্কর চলতে পারে দিলীপ ঘোষের সাথে

1 min read

।। শ্রীপর্ণা মুখোপাধ্যায় ।।

বিজেপির পালে শন শন করে হাওয়া বইছে। সামনেই নির্বাচন, 21 শে বিজেপির চাই বাড়তি শক্তি, শাসক দল তৃণমূল কে বাংলাথেকে উৎখাত করতে চাই বিজেপির বাড়তি শক্তি। কিন্তু বাড়তি শক্তি আসবে কথা থেকে? বিজেপির কেন্দ্র-রাজ্য নেতৃত্ব অবশ্য দাবি করছে মানুষই শক্তি, বিজেপির পাশে মানুষ আছে তাই 21 শে বাংলায় সরকার গড়বে বিজেপিই। সে যা হবার হবে এখন চিন্তা কম কাজ বেশি এটাই বিজেপির মোটো।বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বের দিকেই এখন নজর বেশি, কারণ কেউ মুখে না বলুক বলাবলি হচ্ছে শোনা যাচ্ছে রাজ্য বিজেপির অন্দরে নাকি গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে।

দায়িত্ব এখন অনেক বেশি নাকি নিজের কাঁধে দায়িত্ব বেশি করে নিচ্ছেন ব্যপোর রাজ্য সভাপতি তা কিন্তু বোঝা যাচ্ছে না। এদিকে শোনা যাচ্ছে তথাগত রায় আসতে পারেন রাজ্য বিজেপির নয়া মুখে হয়ে। খোলাখুলি তিনি জানিয়েও দিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব অনুমতি দিলে তিনি পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি তে ফিরবেন। নিজের মনের কথা তথাগত বাবু কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছেও জানিয়েছেন জলে শোনা যাচ্ছে। এদিকে দিলীপ ঘোষ কে উপদেশ দিতে শুরু করেছেন তথাগত বাবু, “গোমূত্র, গোবর, উটমূত্র ইত্যাদি পানের পরামর্শ, গরুর দুধে সোনা খুঁজে পাওয়া, এসব অবৈজ্ঞানিক kothq বাঙালি পছন্দ করে না।

“এটা তথাগত বাবুর দিলীপ বাবুর প্রতি উপদেশ নাকি কটাক্ষ সেই নিয়ে অবশ্য কেউ কিচ্ছু টি বলছেন না।তবে প্রশ্ন সেটা নয়, প্রশ্ন একটাই বিজেপি তথাগত রায় আসছেন কিনা? 20শে মে রাজ্যপালের মেয়াদ শেষ হয়েছেন তথাগত রায়ের তবে করোনার জন্যই তিনি এখনও মেঘালয়ের রাজ্যপাল পদে আছেন। 2009-2014 দুই লোকসভা ভোটেই প্রতিন্দন্দ্বিতা করেছিলেন তথাগত রায় কিন্তু হেরে যান পড়ে 2015 র মাঝামাঝিকরে ত্রিপুরার রাজ্যপাল করে পাঠানো হয় তথাগত রায় কে।

পড়ে মেঘালয়ে যান তিনি। তবে রাজ্যপাল পদে থেকেও তিনি বরে বারে তৃণমূল নেতৃত্বে মমতার বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করে গেছেন, এবং হাবেভাবে তথাগত রায় বুঝিয়ে ছেড়েছেন তিনি হিন্দুত্ববাদী রাজনীতির পক্ষে।রাজ্য বিজেপিতে যদি তথাগত রায় আসেন তাহলে তাঁর টক্কর কে রাজ্য সভাপতির সাথে চলবে সে অনুমান করে নিতে পারছে ওয়াকিবহাল মহল। দিলীপ ঘোষ অবশ্য এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া জানান নি। তথাগত রায় যদি সক্রিয় রাজনীতি তে ফিরতে ছেয়ে বিজেপি তে ফেরেন তাতে বিজেপির লাভ জানিয়ে দিয়েছেন রাহুলের সিনহা।

মুকুল -দিলীপ সংঘাত সামনে না এলেও, একটা রেখার অভ্যাস জে পাওয়া যাচ্ছে তা তো বোঝাই যাচ্ছে। দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে এবং রাজ্য সভাপতির শিবিরের বিরুদ্ধে দিল্লি তে গিয়ে অর্জুন সিং নাকি রাজ্য সভাপতি কে নিয়ে তোপ দেখেছেন। শোনা যাচ্ছে দলের অন্দরেই কেউ কেউ বিজেপির রাজ্য সভাপতি কে নিয়ে খুশি নন। ঠিক এই সময় যদি তথাগত রায় বাংলায় আসেন তাহলে মুকুল ছেড়ে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলবে তথাগত রায়ের।।