আমফানের টাকা বিলিকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত নন্দীগ্রাম

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

বিভিন্ন ক্ষোভ-বিক্ষোভের ফুঁশছে নন্দীগ্রাম, কোথাও আমফানে ত্রান নিয়ে স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছে আবার কোথাও কাটমানি নিয়ে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এই নন্দীগ্রামে। কিন্তু এবার খোদ পার্টি অফিস থেকে আমফানের টাকা বিলির অভিযোগ উঠল নন্দীগ্রামে।যদিও এলাকার স্থানীয় তৃণমূল নেতা তথা উপপ্রধান মেঘনাথ পাল এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁর দাবি, ‘ওদিন আমফানের কোন টাকা দেওয়া হয়নি। দলের তরফ থেকে দলের টাকায় এদিন বিলি করা হয়েছিল।’

অভিযোগ নন্দীগ্রাম- ১ ব্লকের হরিপুর ৫ অঞ্চলের বাহাদুরপুরের একটি তৃণমূল পাটি অফিসে শুক্রবার সকাল থেকে চলে আমফানের টাকা বিলি।যেখানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় অঞ্চলের উপপ্রধান মেঘনাথ পাল সহ তৃণমূলের অন্যান্য নেতৃত্বরা। অভিযোগ ওই এলাকার প্রায় ৫৬ জন ব্যক্তিকে আমফানের ক্ষতিপূরণের বাবদ ২০,০০০ টাকা করে পাইয়ে দেওয়া হয়েছে তৃণমূলের তরফ থেকে।এরপর সেই টাকার মধ্যে ১৫০০০ টাকা নিয়ে নেয় স্থানীয় দলের নেতারা। আর সেই টাকা পার্টি অফিস থেকে স্থানীয় ব্যাক্তিদের টাকা বিলি করার অভিযোগ উঠল ।

যার জন্য আগের থেকেও প্রস্তুতিও নেওয়া হয়েছিল। গ্রামে গ্রামে গিয়ে বিলি করা হয়েছিল টাকা দেওয়ার কুপন। আর সেই নিয়ে শুক্রবার সকালে টাকা নিতে হাজির হয়েছিলেন প্রায় ৪৬ জন ব্যক্তি। এমন সময় গ্রামের স্নেহাশীষ জানা নামে এক ব্যক্তি নিজের ক্ষতিপূরণের টাকা দাবি করে যখন পার্টি অফিসে যান। তখন তার ওপর চড়াও হয় এবং তাকে সহ তার দাদাকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।