প্রেমিক গৌরবকে ভাই বললেন কেন দেবলীনা?

।। স্বর্ণালী তালুকদার ।। কলকাতা ।। 

করোনা কালে টলিপাড়ায় প্রেম চলছে রমরমিয়ে। বেশ কিছুুুুুুুুুুুুুুুু তারকা তো বিয়েই সেরে ফেললেন করোনা কালে। তবে বিয়ে করার প্ল্যানিং তো দেবলীনা কুমার এবং গৌরব চক্রবর্তীরও ছিল। হয়ত এই বছরের শীতেই বাজত দুই বাড়িতে সানাই। কিন্তু করোনা অতিমারির জন্য সেই প্ল্যান ভেস্তে গেল। অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার সম্প্রতি একটি রিয়ালিটি গেম শোতে এসে জানালেন করোনা কালে লোকজন ছাড়া বিয়ে করতে রাজি নন। তিনি আনন্দ করে বিয়ে করতে চান, সকলকে নিয়ে।

অভিনেত্রী মিষ্টি করে জানিয়েছেন,‘তাঁর বিয়েতে অনেক লোক আসবে। অনেক গয়না পরবেন তিনি, তিনি প্রচুর উপহার চান। একা একা বিয়ে করতে তিনি মোটেও চান না। তিনি আরও চান, যে সেই সব উপহার ট্রাকে করে বাপের বাড়ি থেকে শ্বশুরবাড়িতে পাঠানো হবে। সব মোড়ক খুলে প্রত্যেকটা উপহার দেখবেন, তবেই না বিয়ের মজা হবে। 

তবে বিয়ের জন্য তিনি সমস্ত রকম প্রস্তুতি নিতেও শুরু করেছেন। প্রতিদিন নিয়ম করে রান্না করছেন নানান রকম পদ। শুধু কি রান্না করা, সেই খাবার নিজের লাল মারুতি ড্রাইভ করে নিয়মিত মনোহরপুকুর রোড থেকে গিরিশ মুখার্জি রোডে মহানায়ক উত্তম কুমারের বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছেন। তিনি জানিয়েছেন, ভাই বোন বলে তো কেউ নেই। গৌরবের সঙ্গে দিব্য সময় কেটে যায়, ও তো ভাইয়ের মত। মার পিট করে, খেলাধুলা করে বেশ সময় কেটে যায়। 

এই লকডাউনে বেশ কিছু ফটোশ্যুটে কাজ করেছেন এই জুটি। প্রয়াত ফ্যাশন ডিজাইনার শর্বরী দত্তের পোশাক পরে একটি অ্যাড শ্যুট ও করেছেন। দুই তারকা মিলে সকাল সকাল সাইক্লিং করতেও শুরু করেছেন। বিয়ের আগে থেকেই ফিট থাকার বিষয়ে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হয়েছেন। খাওয়া দাওয়ার সঙ্গে লুকসেও পরিবর্তন এনেছেন এই জুটি। লকডাউন উঠলে খুব তাড়াতাড়িই বিয়ের সানাই বাজতে চলেছে দুই বাড়িতে, তা স্পষ্ট।