Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

আজ অভিষেকের চার বিশেষ ‘অঙ্গীকার’ !

1 min read

।। প্রীতম সাঁতরা ।।

মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পাশাপাশি নির্বাচনী জনসভাতে রয়েছেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ও। সন্দেশখালিতে তৃণমূল প্রার্থী সুকুমার মাহাতোর প্রচারে গিয়ে ফের শোনালেন মানবদরদী কথা। তাঁর বিশ্বাস, ২ তারিখে সরকার গড়বে তৃণমূল।

ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে ১২ হাজার

ভোট ধরে রাখতে সাধারণ মানুষের ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন ‘জেনারেল’ হলে সরাসরি অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেওয়া হবে বছরে মোট ৬ হাজার টাকা। ‘এসসি’, ‘এসটি’ হলে পাওয়া যাবে বছরে ১২ হাজার টাকা। অর্থাৎ মাস প্রতি এক হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছে।

আর দাঁড়াতে হবে না লাইনে

নির্বাচনের আগে ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প এনে চমক দিয়েছিল রাজ্য সরকার৷ সেই পথ ধরেই ভোটের আবহে ‘দুয়ারে রেশন’-এর প্রতিশ্রুতি। জেলায় জেলায় নির্বাচনী প্রচারে মমতা বন্দোপাধ্যায় নিজেও ঘরে ঘরে রেশন পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ও রয়েছেন সেই পথেই। জনসভা থেকে তিনি বলেছেন, “না থাকবে রেশনের দোকান, না থাকবে লাইন। কারণ ঘরে ঘরে পৌঁছে যাবে সবকিছু।”

কেন্দ্রের থেকে অধিক কৃষক-বান্ধব

কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের প্রতি কতোটা দরদী সে ব্যাপারে একাধিকবার উঠেছে প্রশ্ন। সিংঘু সীমান্তের আন্দোলন জোর বাড়িয়েছে কেন্দ্র বিরোধী দলের। তৃণমূলের কাছেও দিল্লি সীমান্তের এই আন্দোলন এক হাতিয়ার। এদিন সভামঞ্চ থেকে অভিষেক জানিয়েছেন, আগামী দিনে তৃণমূল সরকার গড়লে কৃষকদের দেওয়া হবে ১০ হাজার আর্থিক সাহায্য। যেখানে কেন্দ্রীয় প্রকল্পে ৬ হাজার টাকা দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন তৃণমূল নেতা।

ছাত্রদের জন্য ১০ লক্ষ

অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের বক্তব্যে এদিন ছিল ৪ টি বিশেষ ‘অঙ্গীকার’। যার মধ্যে রয়েছে ছাত্রদের কথাও। তিনি জানিয়েছেন, ১ জুন থেকে রাজ্যের সকল মেধাবী পড়ুয়াদের পড়াশোনায় সাহায্য করবে সরকার। বাংলার সমস্ত মেধাবী ছাত্রদের জন্য বরাদ্দ করা হবে ১০ লক্ষ সাহায্য অর্থ।