হঠাৎ প্রেসার লো? কি করবেন জেনে নিন

1 min read

।। সুদীপা সরকার ।।

অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা, ভয়, পরিশ্রম দুর্বলতা থেকে লো ব্লাড প্রেসার হতেই পারে। প্রেসার খুবি লো হলে কিডনি মস্তিষ্ক হৃদপিন্ডে সঠিকভাবে রক্ত পৌঁছতে পারেনা। তাই অসুস্থতা দেখা দেয়। তবে কোনো নির্দিষ্ট কারণে লো প্রেসার হয় না।

অপুষ্টি, অপর্যাপ্ত ঘুম, ডায়রিয়া, বদহজম, রক্তপাত, রক্তশূন্যতা এমনকী হরমোনের ভারসাম্যহীনতা লো প্রেসারের কারণ হয়ে থাকে। কিন্তু হঠাৎ করেই বাড়িতে চলতে ফিরতে গিয়ে প্রেসার লো হয়ে গেলে অথবা কয়েকদিন ধরে প্রেসার যদি একটু নিম্ন মুখী থাকে তাহলে কি করবেন ? জেনে রাখুন..

১. কফি প্রেসার বাড়াতে পারে। সে ক্ষেত্রে স্ট্রং কফি , হট চকলেট খেতে পারেন।

২. যদি বাড়িতে কফি না থাকে রান্নাঘরে সবসময় মজুত থাকে নুন। প্রেসার লো হলে এক গ্লাস জলে দুই চামচ চিনি ১ চা চামচ মিশিয়ে খেয়ে নিন।

৩.নুনে সোডিয়াম থাকায় রক্তচাপ বাড়ায়। তবে যাদের ডায়াবেটিস আছে তারা চিনি দেবেন না।

৪. এক কাপ জলে এক চামচ যষ্টিমধু দিয়ে পান করুন।

৫. এছাড়া প্রেসার লো অনুভব করলে দুধে মধু দিয়ে খেলে উপকার পাবেন।

৬. ডিম ও দুধে হাই প্রোটিন আছে। তাই পথ্য হিসেবে রোগীকে দুধ ডিম দিতে পারেন।

৭. বিটের রস হাই প্রেসার ও লো প্রেসার এর জন্য খুবই উপকারী। এটি রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।

৮. পুদিনায় ভিটামিন-সি ম্যাগনেসিয়াম পটাশিয়াম থাকে যা দ্রুত ব্লাড প্রেসার বাড়ানোর সঙ্গে মানসিক অবসাদ দূর করে। প্রেসার লো অনুভব করলে মধুর সাথে পুদিনা পাতা বেটে খান।

লো প্রেসার থাকলে পাঁচটি কাঠবাদাম অথবা ১৫ থেকে ২০ টি চিনা বাদাম খেতে পারেন।

নিয়মিত রোজ সকালে ৫ থেকে ৬ টি করে তুলসী পাতা খান। এতে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে‌।

তবে লো প্রেসার কমাতে আপনাকে অতিরিক্ত কাজের চাপ রোদে ঘোরাঘুরি মানসিক অবসাদ থেকে দূরে থাকতে হবে সব সময়।