ভারত ছাড়া ১৫ আগস্ট আর কোন কোন দেশে স্বাধীনতা দিবস পালিত হয় জানুন…

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

 ১৯৪৭ সালের ১৫ অগাস্ট ভারত ব্রিটিশ রাজশক্তির শাসনকর্তৃত্ব থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছিল। সেই ঘটনাটিকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য প্রতি বছর ১৫অগাস্ট তারিখটি ভারতে স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালন করা হয় । ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের নেতৃত্বে প্রধানত অহিংস, অসহযোগ ও আইন অমান্য আন্দোলন এবং বিভিন্ন চরমপন্থী গুপ্ত রাজনৈতিক সমিতির সহিংস আন্দোলনের পথে পরিচালিত এক দীর্ঘ স্বাধীনতা সংগ্রামের পর ভারত স্বাধীনতা অর্জন করেছিল।

স্বাধীনতার ঠিক পূর্ব-মুহুর্ত ভারত ধর্মের ভিত্তিতে ভাগ হয় এবং তার ফলে ভারত  ও পাকিস্থান অধিরাজ্যের জন্ম ঘটে। ১৯৪৭ সালের ১৫ অগস্ট জওহরলাল নেহেরু ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণের পর লালকেল্লায় লাহোরি গেটের উপর ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।তবে জানেন কি ভারত ছাড়াও আরও পাঁচটি দেশে এই একই দিনে অর্থাত্‍ ১৫ আগস্টে স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়। সেই পাঁচটি দেশের মধ্যে রয়েছে উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, লিচেনস্টেইন, বাহারিন, কঙ্গো প্রজাতন্ত্র

উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া – ৩৫ বছরের জাপানি উপনিবেশের অবসানের পর স্বাধীনতা পায় কোরিয়া। ১৯৪৫ সালে কোরিয়া স্বাধীন হয় ১৫ আগস্ট তারিখেই। কোরিয়ার স্বাধীনতার তিন বছর পর উত্তর ও দক্ষিণ দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায় দেশটি। কিন্তু স্বাধীনতা দিবসটি একই দিনে পালিত হয়ে চলেছে।

লিচেনস্টেইন -বিশ্বের ষষ্ঠতম ক্ষুদ্র দেশ হল লিচেনস্টাইন। এই লিচেনস্টাইন জার্মানির শাসন থেকে মুক্তি লাভ করে ১৮৬৬ সালের ১৫ আগস্ট।

বাহারিন – ১৯৭১ সালের ১৫ আগস্ট বাহারিনের স্বাধীনতা ঘোষিত হয়। রাষ্ট্রসংঘের দ্বারা পরিচালিত একটি জনগণনা করা হয় এই দ্বীপপুঞ্জটিতে। তার পরই ব্রিটিশের নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্তি লাভ করে বাহারিন।


কঙ্গো : কঙ্গো প্রজাতন্ত্র ৮০ বছর ফ্রান্সের করায়ত্ত ছিল। অবশেষে ফরাসি শাসন থেকে পাকাপাকি ভাবে মুক্তি পায় ১৯৬০ সালের ১৫ আগস্ট।