Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘দুবাইতে সম্পত্তি আছে, গদ্দারকে জব্দ করুন’, রাজীবকে বেনজির আক্রমণ মমতার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

একদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করেছেন স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে। অন্যদিকে নাম না করে বিজেপি প্রার্থী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে গদ্দার বলে তোপ দেগেছেন। বৃহস্পতিবার প্রচারের শেষ দিনে ডোমজুড়ে এসে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অত্যন্ত আক্রমণাত্মক মেজাজেই বক্তব্য রাখতে দেখা গেল। তিনি বলেন, ” আমি আবার আসব ডোমজুড়ে। এখানে ওই গদ্দারটার জামানত বাজেয়াপ্ত করতে হবে। তখন এসে মিষ্টি খাওয়াব সবাইকে। বিজেপিকে একটি ভোটও দেবেন না।

ওরা খালি দাঙ্গা করে। কোটি কোটি টাকা খরচ করে প্রচার করছে। কিন্তু তাতে লাভ হবে না। বাংলার মা ভাইবোনরা ওদের রাজ্য থেকে বিদায় করুন।” তবে এদিন তিনি ডোমজুড়ের বিজেপি প্রার্থী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নজিরবিহীন আক্রমণ করেছেন। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীবকে নিশানা করে মমতা বলেন, ” আগে বুঝতে পারিনি। লম্বা, ফর্সা, বেশ সুন্দর দেখতে। কিন্তু ভেতরে এত প্যাঁচ ছিল বুঝিনি। সেচ দপ্তরের মন্ত্রী ছিল। ওকে সরিয়ে বনমন্ত্রী করেছিলাম।

কারণ সেচ দপ্তরে থাকার সময় প্রচুর দুর্নীতির অভিযোগ পেয়েছিলাম ওর বিরুদ্ধে। অনেক টাকা করেছে। কলকাতায় কটা বাড়ি, কত সম্পত্তি রয়েছে? দুবাইতে পর্যন্ত সম্পত্তি আছে। আমাকে বলছে সেচ দপ্তর দিতে হবে। তাহলে তো চুরি করতে সুবিধা হবে! এরা লোকের আপদে-বিপদে কোনও দিন পাশে আসেনি। তাই আপনাদের বলছি এবার তৃণমূল প্রার্থী কল্যাণ ঘোষকে ভোট দিন। ওকে হয়ত দেখতে ততটা ভাল নয়। কিন্তু আপনাদের পাশে থাকবে”।

আরো পড়ুন : সুজাতার উপরে হামলা, পুলিশের রিপোর্টে খুশি নয় কমিশন

সভামঞ্চে মমতা প্রবেশ করার আগে স্থানীয় তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় তীব্র আক্রমণ করেছেন এখানকার বিজেপি প্রার্থীকে। রাজীবের পাশাপাশি শুভেন্দু অধিকারী এবং প্রবীর ঘোষালের নাম করে তিনি বলেন, এই ‘ট্রায়ো’ শুধু দুর্নীতি করে গিয়েছে। কোটি কোটি টাকা নয়ছয় করেছে। এরপর মমতা সেই মঞ্চ থেকে রাজীবের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন। তিনি আরও বলেন, “কোনও কাজ তুমি করোনি। তাহলে মুখ্যমন্ত্রীর দরকার পড়ত না। এখন আবার গান রেকর্ডিং করছে!

তাই বলছি ডোমজুড়ের বেইমানকে পরাজিত করুন। ভোটের পর যা চাইবেন তাই দেব। ওর দুর্নীতির কথা জানলে আগেই গদ্দারটাকে সরিয়ে দিতাম।” এদিন যথারীতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চেনা ছকে আক্রমণ করেছেন মমতা। তবে যেভাবে তিনি রাজীবের বিরুদ্ধে এতটা আক্রমণাত্মক হয়েছেন, সেটা আগে দেখা যায়নি। প্রচারের শেষ দিনে ডোমজুড়ে এসে নজিরবিহীন ভাষায় আক্রমণ করেছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে।